His Supplication in Fear
(Supplication – 50)


دُعَاؤُهُ فِي دَفْعِ كَيْدِ الْأَعْدَاءِ

1

O God, Thou created me without fault,

أَللَّهُمَّ إنَّكَ خَلَقْتَنِي سَوِيّاً،

1

2

nurtured me when small, and provided me with
sufficiency.

وَرَبَّيْتَنِي صَغِيراً، وَرَزَقْتَنِي مَكْفِيّاً.

2

3

O God, I found in the Book which Thou sent down

أَللَّهُمَّ إنِّي وَجَدْتُ فِيمَا أَنْزَلْتَ مِنْ
كِتَابِكَ،

3

4

and through which Thou gave good news to Thy
servants,

وَبَشَّرْتَ بِهِ عِبَادِكَ،

4

5

that Thou said, O My servants who hare been
prodigal against yourselves,

أَنْ قُلْتَ: (يا عِبَادِيَ الَّذِينَ أَسْرَفُوا
عَلَى أَنْفُسِهِمْ

5

6

do not despair of God’s mercy, surely God
forgives all sins,

لاَ تَقْنَطُوا مِنْ رَحْمَةِ اللهِ إنَّ اللهَ
يَغْفِرُ الذُّنُوبَ جَمِيعاً)

6

7

but there has gone ahead from me what Thou
knowest

وَقَدْ تَقَدَّمَ مِنِّي مَا قَدْ عَلِمْتَ،

7

8

(and of which Thou knowest more than I)!

وَمَا أَنْتَ أَعْلَمُ بِهِ مِنِّي،

8

9

O the shame of what Thy Book has counted against
me!

فَيَا سَوْأَتا مِمَّا أَحْصَاهُ عَلَيَّ
كِتَابُكَ،

9

10

Were it not for the places where I expectantly
hope for Thy pardon,

فَلَوْلاَ الْمَوَاقِفُ الَّتِي أُؤَمِّلُ مِنْ
عَفْوِكَ

10

11

which enfolds all things, I would have thrown
myself down [in despair]!

الَّذِي شَمِلَ كُلَّ شَيْء لاَلْقَيْتُ بِيَدِي،

11

12

Were anyone able to flee from his Lord,

وَلَوْ أَنَّ أَحَداً اسْتَطاعَ الْهَرَبَ

12

13

I would be the most obligated to flee from Thee!

مِنْ رَبِّهِ لَكُنْتُ أَنَا أَحَقُّ بِالهَرَبِ،

13

14

But not a secret in earth and heaven is
concealed from Thee,

وَأَنْتَ لاَ تَخْفَى عَلَيْكَ خَافِيَةٌ فِي
الاَرْضِ

14

15

except that Thou bringest it.

وَلاَ فِي السَّمَآءِ إلاَّ أَتَيْتَ بِهَا،

15

16

Thou sufficest as a recompenser! Thou sufficest
as a reckoner!

وَكَفى بِكَ جَازِياً، وَكَفى بِكَ حَسِيباً.

16

17

O God, surely Thou wouldst seek me if I flee

أللَّهُمَّ إنَّكَ طَالِبِي إنْ أَنَا هَرَبْتُ،

17

18

and catch me if I run.

وَمُدْرِكِي إنْ أَنَا فَرَرْتُ،

18

19

So here I am before Thee, abject, lowly, abased.

فَهَا أَنَا ذَا بَيْنَ يَدَيْكَ خَاضِعٌ ذَلِيلٌ
رَاغِمٌ،

19

20

If Thou chastisest me, I am worthy of that,

إنْ تُعَذِّبْنِي فَإنّي لِذلِكَ أَهْلٌ،

20

21

and it would be, my Lord, an act of justice from
Thee.

وَهُوَ يَارَبِّ مِنْكَ عَدْلٌ،

21

22

But if Thou pardonest me, anciently has Thy
pardon enfolded me

وَإنْ تَعْفُ عَنِّي فَقَدِيماً شَمَلَنِي
عَفْوُكَ،

22

23

and Thy well-being garmented me!

سْتَنِي عَافِيَتَكَ.

23

24

So I ask Thee, O God, by Thy names stored in Thy
treasury

فَأَسْأَلُكَ اللَّهُمَّ بِالْمَخْزونِ مِنْ
أَسْمائِكَ،

24

25

and Thy splendour masked by the veils!

وَبِمَا وَارتْهُ الْحُجُبُ مِنْ بَهَائِكَ،

25

26

If Thou hast no mercy upon this anxious soul

إلاَّ رَحِمْتَ هذِهِ النَّفْسَ الْجَزُوعَةَ،

26

27

and these uneasy, decaying bones –

وَهَذِهِ الرِّمَّةَ الْهَلُوعَةَ،

27

28

he cannot endure the heat of Thy sun,

الَّتِي لاَ تَسْتَطِيعُ حَرَّ شَمْسِكَ،

28

29

so how can he endure the heat of Thy Fire?

فَكَيْفَ تَسْتَطِيعُ حَرَّ نارِكَ؟

29

30

He cannot endure the sound of Thy thunder,

وَالَّتِي لاَ تَسْتَطِيعُ صَوْتَ رَعْدِكَ،

30

31

so how can he endure the sound of Thy wrath?

فَكَيْفَ تَسْتَطِيعُ صَوْتَ غَضَبِكَ؟

31

32

So have mercy upon me, O God, for I am a vile
man and my worth is little.

فَارْحَمْنِي اللَّهُمَّ فَإنِّي امْرُؤٌ حَقِيرٌ،
وَخَطَرِي يَسِيرٌ،

32

33

Chastising me will not add the weight of a dust
mote to Thy kingdom.

وَلَيْسَ عَذَابِي مِمَّا يَزِيدُ فِي مُلْكِكَ
مِثْقَالَ ذَرَّة،

33

34

Were chastising me something that would add to
Thy kingdom,

وَلَوْ أَنَّ عَذَابِي مِمَّا يَزِيدُ فِي
مُلْكِكَ

34

35

I would ask Thee for patience to bear it

لَسَأَلْتُكَ الصَّبْرَ عَلَيْهِ،

35

36

and would love for it to belong to Thee;

وَأَحْبَبْتُ أَنْ يَكُونَ ذلِكَ لَكَ،

36

37

but Thy authority, my God, is mightier,

وَلكِنْ سُلْطَانُكَ اللَّهُمَّ أَعْظَمُ،

37

38

and Thy kingdom more lasting, than that the
obedience of the obeyers should increase it

وَمُلْكُكَ أَدْوَمُ مِنْ أَنْ تَزِيـدَ فِيْهِ
طَاعَةُ الْمُطِيعِينَ،

38

39

or the disobedience of the sinners diminish it!

أَوْ تُنْقِصَ مِنْهُ مَعْصِيَةُ الْمُذْنِبِينَ.

39

40

So have mercy upon me, O Most Merciful of the
merciful!

فَارْحَمْنِي يا أَرْحَمَ الرَّاحِمِينَ،

40

41

Show me forbearance, O Possessor of majesty and
munificence!

وَتَجاوَزْ عَنِّي يا ذَا الْجَلاَلِ وَالإكْرَامِ،

41

42

And turn toward me, Surely Thou art
Ever-turning, All-compassionate!

وَتُبْ عَلَيَّ إنَّكَ أَنْتَ التَّوَّابُ
الرَّحِيمُ.

42

 

পরম করুণাময় এবং অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি

ধার্মিকতার ভয়ের দৃষ্টিভঙ্গিতে তাঁর একটি মুনাজাত।
হে প্রভু, আমাকে আপনি পরিপূর্ণভাবে পয়দা করেছেন। যখন আমি অবুঝ ছিলঅম তখন আমাকে পালন করেছেন এবং আমার প্রয়োজনীয় শম্রষা করেছেন।
হে প্রভু, আপনি আপনার কিতাব নাযিল করেছেন এবং যার দ্বারা আপনি আপনার বান্দার জন্য ভালাই দান করেছেন, তাতে আমি পেয়েছি যে, আপনি বলেছেন, “হে আমার বান্দাগণ যারা নিজেদের নফসের উপর জুলুম করেছ তোমরা আল্লাহর রহমত থেকে নিরাশ হয়ো না। নিশ্চয় আল্লাহ সমস্ত গুণাহ্ মাফ করেন।”
মূলত অতীতে আমি যা করেছি সে ব্যাপারে আপনি অবগত এবং যা আমার চেয়ে আপনি ভাল জানেন।
আমার মর্যাদাখানি এ জন্যও যে যা আপনার নথিতে আমার বিপক্ষে রয়েছে। তাতে এমন কোনো সুযোগ ছিল না যে আপনার ক্ষমা প্রত্যাশা করতে পারি, যা সব সময় বিস্তৃত ছিল। নিশ্চিতভাবে আমি আমার হাত দ্বারা ধ্বংস হওয়া থেকে নিবৃত্ত হতে পারিনি।
যদি কারো এ ক্ষমতা থাকত যে সে তার স্রষ্টার কাছ থেকে পালাতে পারে, তরে আপনার কাছ থেকে পালার জন্য আমিই সবচেয়ে উপযুক্ত ছিলাম। আপনি এমন সত্তা যার কাছ থেকে কোনো কিছুই আড়াল থাকে না (জমিনেরও না আর আকশেরও না) কিন্তু আপনি তা গণ্য করেন না। আর অপনি প্রতিদান দাতা হিসেবে যথেষবচ এবং গণনাকারী হিসেবেও যথেষ্ট।
আমার প্রভু, মূলত আমি যদি পালাই আপনি আমার খোঁজ করবেন এবং আমি যদি দৌড়ে পালাই আপনি আমাকে আটক করে ফেলবেন।
সেজন্য, দেখুন আমি অপদস্ত ও লজ্জিত হয়ে আপনার সামনে দাঁড়িয়েছি। যা আমি আপনার কাছে আশা করি (আমার কর্মের কারণে), যদি আপনি আমাকে শাস্তি দেন তবে তা আপনার কাছ থেকে আমার প্রতি সঠিক বিচারের কাজ, হে প্রভু,
যদি আপনি আমাকে ক্ষমা করেন, তখন আপনার ক্ষমা সব সময় আমার উপর বর্তাবে।
আপনি সব সময় আমাকে আপনার নিরাপত্তার দ্বারা আচ্ছাদিত করেছেন।
সেজন্য, হে প্রভু, আপনার গুণাম্বিত নামগুলোর দ্বারা এবং যা পর্দা ঢেকে দেয় সেই আপনার মহত্ত্বের উছিলায় প্রার্থনা করছি যে আমার অধৈর্য্য আত্মা এবং আমার ধ্বংস হওয়াতে করুণা প্রদর্শন করুন। আমার হাড়গুলো কাঁপছে যেগুলো আপনার সূর্যের তাপ সহ্য করতে পারবে না। কিভাবে ওগুলো আপনার আগুনের তাপ সহ্য করবে। তারা আপনার বজ্রের আওয়াজ সহ্য করতে পারে না, তখন তারা কিভাবে আপনার গোসসাকে সহ্য করবে।
সেজন্য, আমার উপর কনুণা, হে প্রভু। আমি একজন হীন এবং অযোগ্য মানুষ।
আমার শাস্তি এমন নয় যে আপনার সার্বভৌমত্বে তা একটি পরমাণুর ওজন বাড়িয়ে দেবে।
আমার শাস্তি যদি আপনার সার্বভৌমত্বকে বাড়িয়ে দিত, মূলত তখন সে সহ্য করার জন্য আপনার কাছে দোয়া করতাম এবং আমার জন্য যা নিয়োজিত করতেন তাই পছন্দ করতাম।
কিন্তু হে প্রভু, আপনার কর্তৃত্ব এতই বিশাল অথবা আপনার সার্বভৌমত্ব এতই যে আপনার অনুগতদের কার্য দআরা তা বৃদ্ধিও হয় না অথবা পাপীদের অবাধ্যতার দ্বারা তার লয়ও হয় া।
সেজন্য, হে পরম দয়াময়, আমার উপর করুণা করুন।
হে গৌরব এবং মহত্বের অধিকারী, আমাকে ক্ষমা করুন।
আমার তওবা কবুল করুন।
বিশেষত, আপনার সত্তাই তওবা কবুলকারী, সবচেয়ে বদান্যশীল।

Ref: হযরত ইমাম জয়নাল আবেদীন আল ছহীফাহ্ আল সাজ্জাদীয়াহ্
অনুবাদ মুহাম্মদ মাঈনউদ্দিন
অন্যধারা, ৩৮/২-ক বাংলাবাজার (৫ম তলা) ঢাকা-১১০০
প্রকাশকাল : সেপ্টেম্বর ২০০৮
বাংলা অনুবাদ: প্রকাশক ২০০৮