دُعَاؤُهُ بِالتَّوْبَةِ
In
mentioning and asking for Repentance
1
O God, O He whom the depiction of the describers
fails to describe!
أَللَّهُمَّ يَا مَنْ لا يَصِفُهُ نَعْتُ الْوَاصِفِينَ
،
1
2
O He beyond whom passes not the hope of the hopers!
وَيَا مَنْ لاَ يُجَاوِزُهُ رَجَاءُ الرَّاجِينَ ،
2
3
O He with whom is not lost the wage of the
good-doers!
وَيَا مَنْ لاَ يَضِيعُ لَدَيْهِ أَجْرُ الْمُحْسِنِينَ،
3
4
O He who is the ultimate object of the fear of the
worshipers!
وَيَا مَنْ هُوَ مُنْتَهَى خَوْفِ الْعَابِدِيْنَ،
4
5
O He who is the utmost limit of the dread of the
godfearing!
وَيَا مَنْ هُوَ غَايَةُ خَشْيَةِ الْمُتَّقِينَ.
5
6
This is the station of him whom sins have passed
from hand to hand.
هَذا مَقَامُ مَنْ تَدَاوَلَتْهُ أَيْدِي الذُّنُوبِ ،
6
7
Offenses’ reins have led him on,
وَقَادَتْهُ أَزِمَّةُ الْخَطَايَا ،
7
8
and Satan has gained mastery over him.
وَاسْتَحْوَذَ عَلَيْهِ الشَّيْطَانُ،
8
9
He fell short of what Thou hast commanded through
neglect
فَقَصَّرَ عَمَّا أَمَرْتَ بِهِ تَفْرِيطَاً،
9
10
and he pursued what Thou hast prohibited in
delusion,
وَتَعَاطى مَا نَهَيْتَ عَنْهُ تَغْرِيراً،
10
11
like one ignorant of Thy power over him
كَالْجاهِلِ بِقُدْرَتِكَ عَلَيْهِ،
11
12
or one who denies the bounty of Thy beneficence
toward him,
أَوْ كَالْمُنْكِرِ فَضْلَ إحْسَانِكَ إلَيْهِ،
12
13
until, when the eye of guidance was opened for him
حَتَّى إذَا انْفَتَحَ لَهُ بَصَرُ الْهُدَى،
13
14
and the clouds of blindness were dispelled, he
reckoned that through which he had wronged himself
وَتَقَشَّعَتْ عَنْهُ سَحَائِبُ الْعَمَى أَحْصَى مَا
ظَلَمَ بِهِ نَفْسَهُ،
14
15
and reflected upon that in which he had opposed his
Lord.
وَفَكَّرَ فِيمَا خَالَفَ بِهِ رَبَّهُ،
15
16
He saw his vast disobedience as vast and his great
opposition as great.
فَرَأى كَبِيْرَ عِصْيَانِهِ كَبِيْراً، وَجَلِيل
مُخالفَتِهِ جَلِيْلاً،
16
17
So turned to Thee, hoping in Thee and ashamed before
Thee,
فَأَقْبَلَ نَحْوَكَ مُؤَمِّلاً لَكَ، مُسْتَحْيِيَاً
مِنْكَ،
17
18
and he directed his beseeching toward Thee, having
trust in Thee.
وَوَجَّهَ رَغْبَتَهُ إلَيْكَ ثِقَةً بِكَ،
18
19
He repaired to Thee in his longing with certitude
and he went straight to Thee in fear with sincerity.
فَأَمَّكَ بِطَمَعِهِ يَقِيناً، وَقَصَدَكَ بِخَوْفِهِ
إخْلاَصَاً،
19
20
His longing was devoid of every object of longing
but Thee,
قَدْ خَلاَ طَمَعُهُ مِنْ كُلِّ مَطْمُوع فِيهِ
غَيْرِكَ،
20
21
and his fright departed from every object of fear
but Thee.
وَأَفْرَخَ رَوْعُهُ مِنْ كُلِّ مَحْذُور مِنْهُ
سِوَاكَ،
21
22
So he stood before Thee pleading,
فَمَثَّلَ بَيْنَ يَدَيْـكَ مُتَضَرِّعـاً،
22
23
his eyes turned toward the ground in humbleness,
وَغَمَّضَ بَصَرَهُ إلَى الأرْضِ مُتَخَشِّعَاً،
23
24
his head bowed before Thy might in lowliness;
وَطَأطَأَ رَأسَهُ لِعِزَّتِكَ مُتَذَلِّلاً،
24
25
he revealed to Thee in meekness those secrets of his
which Thou knowest better than he;
وَأَبَثَّكَ مِنْ سِرِّهِ مَا أَنْتَ أَعْلَمُ بِهِ
مِنْهُ خَضُوعاً،
25
26
he numbered for Thee in humility those sins of his
which Thou countest better than he;
وَعَدَّدَ مِنْ ذُنُوبِهِ مَا أَنْتَ أَحْصَى لَهَا
خُشُوعاً
26
27
he sought help from Thee before the dreadful into
which he has fallen in Thy knowledge
وَاسْتَغَاثَ بِكَ مِنْ عَظِيمِ مَاوَقَعَ بِهِ فِي
عِلْمِكَ
27
28
and the ugly which has disgraced him in Thy
judgement:
وَقَبِيحِ مَا فَضَحَهُ فِي حُكْمِكَ
28
29
the sins whose pleasures have turned their backs and
gone
مِنْ ذُنُوب أدْبَرَتْ لَذَّاتُهَا فَذَهَبَتْ،
29
30
and whose evil consequences have stayed and stuck
fast.
وَأَقَامَتْ تَبِعَاتُهَا فَلَزِمَتْ،
30
31
He will not deny Thy justice, my God, if Thou
punishest him,
لا يُنْكِرُ يَا إلهِي عَدْلَكَ إنْ عَاقَبْتَهُ،
31
32
nor will he consider Thy pardon great if Thou
pardonest him and hast mercy upon him,
وَلا يَسْتَعْظِمُ عَفْوَكَ إنْ عَفَوْتَ عَنْهُ
وَرَحِمْتَهُ;
32
33
for Thou art the Generous Lord
لأِنَّكَ الرَّبُّ الْكَرِيمُ
33
34
for whom the forgiveness of great sins is nothing
great!
الَّذِي لا يَتَعَاظَمُهُ غُفْرَانُ الذَّنْبِ
الْعَظِيم.
34
35
O God, so here I am: I have come to Thee obeying Thy
command
أَللَّهُمَّ فَهَا أَنَا ذَا قَدْ جئْتُكَ مُطِيعاً
35
36
(for Thou hast commanded supplication)
لاِمْرِكَ فِيمَا أَمَرْتَ بِهِ مِنَ الدُّعَاءِ،
36
37
and asking the fulfilment of Thy promise, (for Thou
hast promised to respond):
مَتَنَجِّزاً وَعْدَكَ فِيمَا وَعَدْتَ بِهِ مِنَ
الإجَابَةِ إذْ تَقُولُ
37
38
Thou hast said, “Supplicate Me and I will respond to
you” (40:60).
(اُدْعُونِي أَسْتَجِبْ لَكُمْ).
38
39
O God, so bless Muhammad and his Household,
أللَّهُمَّ فَصَلِّ عَلَى مُحَمَّد وَآلِهِ
39
40
meet me with Thy forgiveness just as I have met Thee
with my confession,
وَالْقَنِي بِمَغْفِـرَتِكَ كَمَا لَقِيتُكَ
بِإقْرَارِي
40
41
lift me up from the fatal infirmities of sins just
as I have let myself down before Thee,
وَارْفَعْنِي عَنْ مَصَارعِ الذُّنُوبِ كَمَا وَضَعْتُ
لَكَ نَفْسِي
41
42
and cover me with Thy covering just as Thou hast
shown no haste to take vengeance on me!
وَاسْتُرْنِي بِسِتْرِكَ كَمَا تَأَنَّيْتَنِي عَنِ
الانْتِقَامِ مِنِّي.
42
43
O God, make firm my intention to obey Thee,
أللَّهُمَّ وَثَبِّتْ فِي طَاعَتِكَ نِيَّتِيْ،
43
44
strengthen my insight in worshipping Thee,
وَأَحْكِمْ فِي عِبَادَتِكَ بَصِيـرَتِي،
44
45
give me the success of works
وَوَفِّقْنِي مِنَ الأَعْمَالِ
45
46
which will wash away the defilement of offenses,
لِمَا تَغْسِلُ بِهِ دَنَسَ الخَطَايَا عَنِّي،
46
47
and take me when Thou takest me in the creed of Thy
prophet
وَتَوَفَّنِي عَلَى مِلَّتِكَ وَمِلَّةِ نَبِيِّكَ
47
48
Muhammad (upon him be peace).
مُحَمَّد عَلَيْهِ السَّـلامُ إذَا تَوَفَّيْتَنِي.
48
49
O God, I repent to Thee in this my station from
أللَّهُمَّ إنِّي أَتُوبُ إلَيْـكَ فِي مَقَامِي هَذَا
49
50
my sins, great and small,
مِنْ كَبَائِرِ ذُنُوبِي وَصَغَائِرِهَا
50
51
my evil deeds, inward and outward,
وَبَوَاطِنِ سَيِّئآتِي وَظَوَاهِرِهَا،
51
52
my lapses, past and recent,
وَسَوالِفِ زَلاَّتِي وَحَوَادِثِهَا،
52
53
with the repentance of one who does not tell himself
that he might disobey
تَوْبَةَ مَنْ لا يُحَدِّثُ نَفْسَهُ بِمَعْصِيَةٍ
53
54
or secretly think that he might return to an
offense.
وَلاَ يُضْمِرُ أَنْ يَعُودَ فِي خَطِيئَةٍ،
54
55
Thou hast said, my God, in the firm text of Thy
Book,
وَقَدْ قُلْتَ يَا إلهِي فِي مُحْكَمِ كِتابِكَ
55
56
that Thou ‘acceptest repentance from Thy servants,
إنَّكَ تَقْبَلُ التَّوْبَةَ عَنْ عِبَادِكَ،
56
57
pardonest evil deeds’ (ref.42:25), and lovest the
repenters (ref.2:222),
وَتَعْفُو عَنِ السَّيِّئاتِ، وَتُحِبُّ
التَّوَّابِينَ،
57
58
so accept my repentance as Thou hast promised,
pardon my evil deeds as thou hast guaranteed,
فَاقْبَلْ تَوْبَتِي كَمَا وَعَدْتَ وَأعْفُ عَنْ
سَيِّئاتِي كَمَا ضَمِنْتَ،
58
59
and make obligatory toward me Thy love as Thou hast
stipulated!
وَأَوْجِبْ لِي مَحَبَّتَكَ كَمَا شَـرَطْتَ،
59
60
To Thee, my Lord, belongs my stipulation that I will
not return to what is disliked by Thee,
وَلَـكَ يَـا رَبِّ شَـرْطِي أَلاّ أَعُودَ فِي
مَكْرُوهِكَ،
60
61
my guarantee that I will not go back to what Thou
blamest,
وَضَمَانِي أَلاّ أَرْجِعَ فِي مَذْمُومِكَ،
61
62
and my covenant that I will stay away from acts of
disobedience to Thee.
وَعَهْدِي أَنْ أَهْجُرَ جَمِيعَ مَعَاصِيكَ.
62
63
O God, Thou knowest better what I have done, so
forgive me what Thou knowest
أللَّهُمَّ إنَّكَ أَعْلَمُ بِمَا عَمِلْتُ فَاغْفِرْ
لِي مَا عَلِمْتَ،
63
64
and turn me through Thy power to what Thou lovest!
وَاصْرِفْنِي بِقُدْرَتِكَ إلَى مَا أَحْبَبْتَ.
64
65
O God, counted against me are claims that stay in my
memory
أللَّهُمَّ وَعَلَيَّ تَبِعَاتٌ قَدْ حَفِظْتُهُنَّ،
65
66
and claims that I have forgotten,
وَتَبِعَاتٌ قَدْ نَسيتُهُنَّ،
66
67
while all of them remain in Thy eye that does not
sleep
وَكُلُّهُنَّ بِعَيْنِكَ الَّتِي لاَ تَنَـامُ،
67
68
and Thy knowledge that does not forget!
وَعِلْمِكَ الَّذِي لا يَنْسَى
68
69
So compensate their owners, lighten their load upon
me,
فَعَوِّضْ مِنْهَا أَهْلَهَا وَاحْطُطْ عَنّي
وِزْرَهَا،
69
70
lift up their weight from me, and preserve me from
approaching their like!
وَخَفِّفْ عَنِّي ثِقْلَهَا، وَاعْصِمْنِي مِنْ أَنْ
اُقَارِفَ مِثْلَهَا.
70
71
O God, but I can not be faithful to my repentance
without Thy preservation,
أللَّهُمَّ وَإنَّهُ لاَ وَفَاءَ لِي بِالتَّوْبَةِ
إلاَّ بِعِصْمَتِكَ،
71
72
nor can I refrain from offenses without Thy
strength.
وَلا اسْتِمْسَاكَ بِي عَنِ الْخَطَايَا إلاَّ عَنْ
قُوَّتِكَ،
72
73
So strengthen me with a sufficient strength and
attend to me with a defending preservation!
فَقَوِّنِي بِقُوَّة كَافِيَة، وَتَوَلَّنِي بِعِصْمَة
مَانِعَة.
73
74
O God, if any servant repents to Thee,
أللَّهُمَّ أَيُّما عَبْد تَابَ إلَيْكَ
74
75
while in Thy knowledge of the Unseen he will break
his repentance
وَهُوَ فِي عِلْمِ الْغَيْبِ عِنْدَكَ فَاسِخٌ
لِتَوْبَتِهِ
75
76
and return to his sin and offense,
وَعَائِدٌ فِي ذَنْبِهِ وَخَطِيئَتِهِ
76
77
I seek refuge in Thee lest I be like that!
فَإنِّي أَعُوذُ بِكَ أنْ أَكُوْنَ كَذلِكَ،
77
78
So make this my repentance a repentance after which
I will need no repentance
فَاجْعَلْ تَوْبَتِي هَذِهِ تَوْبَةً لا أَحْتَاجُ
بَعْدَهَا إلَى تَوْبَة،
78
79
and a repentance which will obligate the erasing of
what has gone by and safety in what remains!
تَوْبَةً مُوجِبَةً لِمَحْوِ مَا سَلَفَ،
وَالسَّلاَمَةِ فِيمَـا بَقِيَ.
79
80
O God, I ask pardon from Thee for my ignorance,
أللَّهُمَّ إنِّي أَعْتَـذِرُ إلَيْـكَ مِنْ جَهْلِي،
80
81
and I ask Thee to disregard my evil acts!
وَأَسْتَـوْهِبُـكَ سُوْءَ فِعْلِي،
81
82
So join me to the shelter of Thy mercy through
graciousness
فَـاضْمُمْنِي إلَى كَنَفِ رَحْمَتِكَ تَطَوُّلاً،
82
83
and cover me with the covering of Thy well-being
through bounteousness!
وَاسْتُرْنِي بِسِتْرِ عَافِيَتِكَ تَفَضُّلاً.
83
84
O God, I repent to Thee
أللَّهُمَّ وَإنِّي أَتُوبُ إلَيْكَ
84
85
from everything opposed to Thy will
مِنْ كُلِّ مَا خَالَفَ إرَادَتَكَ
85
86
or far from Thy love –
أَوْ زَالَ عَنْ مَحَبَّتِـكَ
86
87
the thoughts of my heart,
مِنْ خَـطَرَاتِ قَلْبِي
87
88
the glances of my eye,
وَلَحَـظَاتِ عَيْنِي
88
89
the tales of my tongue –
وَحِكَايَاتِ لِسَانِي،
89
90
with a repentance through which each bodily part
will by itself stay safe from ill consequences with
Thee
تَوْبَةً تَسْلَمُ بِهَا كُلُّ جَارِحَة عَلَى
حِيَالِهَا مِنْ تَبِعَاتِكَ،
90
91
and remain secure from Thy painful penalties feared
by transgressors!
وَتَأْمَنُ مِمَّا يَخَافُ الْمُعْتَدُونَ مِنْ
أَلِيْمِ سَطَوَاتِكَ.
91
92
O God, so have mercy on my being alone before Thee,
أَللَّهُمَّ فَارْحَمْ وَحْدَتِي بَيْنَ يَدَيْكَ،
92
93
the pounding of my heart in dread of Thee,
وَوَجِيبَ قَلْبِي مِنْ خَشْيَتِكَ،
93
94
the trembling of my limbs in awe of Thee!
وَاضْطِرَابَ أَرْكَانِي مِنْ هَيْبَتِكَ،
94
95
My sins, my God, have stood me in the station of
degradation in Thy courtyard.
فَقَدْ أَقَامَتْنِي يَا رَبِّ ذُنُوبِي مَقَامَ
الْخِزْيِ بِفِنَائِكَ،
95
96
If I remain silent, none will speak for me;
فَإنْ سَكَتُّ لَمْ يَنْطِقْ عَنِّي أَحَدٌ،
96
97
if I seek an intercessor, I am not worthy for
intercession.
وَإنْ شَفَعْتُ فَلَسْتُ بِأَهْلِ الشَّفَاعَةِ.
97
98
O God, bless Muhammad and his Household,
أَللَّهُمَّ صَلِّ عَلَى مُحَمَّد وَآلِهِ
98
99
make Thy generosity intercede for my offenses,
وَشَفِّعْ فِي خَطَايَـايَ كَرَمَكَ،
99
100
follow up my evil deeds with Thy pardon,
وَعُدْ عَلَى سَيِّئاتِي بِعَفْوِكَ،
100
101
repay me not with the punishment that is my proper
repayment,
وَلاَ تَجْزِنِي جَزَآئِي مِنْ عُقُوبَتِكَ
101
102
spread over me Thy graciousness, wrap me in Thy
covering,
وَابْسُطْ عَلَيَّ طَوْلَكَ وَجَلِّلْنِي بِسِتْرِكَ،
102
103
and do with me what is done by a mighty man, when a
lowly slave pleads to him and he shows him mercy,
وَافْعَلْ بِي فِعْلَ عَزِيز تَضَرَّع إلَيْهِ عَبْدٌ
ذَلِيلٌ فَرَحِمَهُ،
103
104
or a rich man, when a poor slave submits himself and
he raises him to wealth!
أَوْ غَنِيٍّ تَعَرَّضَ لَهُ عَبْدٌ فَقِيرٌ
فَنَعَشَهُ.
104
105
O God, I have no protector against Thee, so let Thy
might be my protector!
أللَّهُمَّ لاَ خَفِيرَ لِي مِنْكَ فَلْيَخْفُرْنِيْ
عِزُّكَ،
105
106
I have no intercessor with Thee, so let Thy bounty
be my intercessor!
وَلا شَفِيعَ لِيْ إلَيْكَ فَلْيَشْفَعْ لِي فَضْلُكَ،
106
107
My offenses have set me quaking, so let Thy pardon
give me security!
وَقَدْ أَوْجَلَتْنِي خَطَايَايَ فَلْيُؤْمِنِّي
عَفْوُكَ،
107
108
Not all that I have said rises up from my ignorance
of my evil footsteps
فَمَا كُلُّ مَا نَطَقْتُ بِهِ عَنْ جَهْل مِنِّي
بِسُوْءِ أَثَرِي،
108
109
or forgetfulness of my blameworthy acts in the past,
وَلاَ نِسيَان لِمَا سَبَقَ مِنْ ذَمِيمِ فِعْلِي،
109
110
but in order that Thy heaven and those within it
وَلكِنْ لِتَسْمَعَ سَمَاؤُكَ وَمَنْ فِيْهَـا،
110
111
and Thy earth and those upon it may hear the remorse
which I have professed to Thee
وَأَرْضُكَ وَمَنْ عَلَيْهَا مَا أَظْهَرْتُ لَكَ مِنَ
النَّدَمِ،
111
112
and the repentance through which I have sought
asylum with Thee.
وَلَجَـأتُ إلَيْكَ فِيـهِ مِنَ التَّوْبَـةِ،
112
113
Then perhaps one of them, through Thy mercy, may
show mercy upon my evil situation
فَلَعَـلَّ بَعْضَهُمْ بِرَحْمَتِكَ يَرْحَمُنِي
لِسُوءِ مَوْقِفِي،
113
114
or be seized by tenderness for my evil state.
أَوْ تُدْرِكُهُ الرِّقَّةُ عَلَىَّ لِسُوءِ حَالِي
114
115
There may come from him for my sake a supplication
to which Thou givest ear more than to my
supplication
فَيَنَالَنِي مِنْهُ بِدَعْوَةٍ أَسْمَعُ لَدَيْكَ مِنْ
دُعَائِ#1610;،
115
116
or an intercession surer with Thee than my
intercession
أَوْ شَفَاعَـةٍ أَوْكَدُ عِنْدَكَ مِنْ شَفَاعَتِي
116
117
through which I may be delivered from Thy wrath and
attain to Thy good pleasure!
تَكُونُ بِهَا نَجَاتِي مِنْ غَضَبِكَ وَفَوْزَتِي
بِرضَاكَ.
117
118
O God, if remorse is a repentance toward Thee, then
I am the most remorseful of the remorseful!
أللَّهُمَّ إنْ يَكُنِ النَّدَمُ تَوْبَةً إلَيْكَ
فَأَنَا أَنْدَمُ اْلنَّادِمِينَ،
118
119
If refraining from disobedience is a turning back to
Thee, then I am the first of those who turn back!
وَإنْ يَكُنِ التَّرْكُ لِمَعْصِيَتِكَ إنَابَةً
فَأَنَا أَوَّلُ الْمُنِيبينَ،
119
120
If praying for forgiveness alleviates sins, surely I
am one of those who pray for Thy forgiveness!
وَإنْ يَكُنِ الاسْتِغْفَارُ حِطَّةً لِلذُّنُوبِ
فَإنَي لَكَ مِنَ الْمُسْتَغْفِرِينَ.
120
121
O God, as Thou hast commanded repentance and
guaranteed acceptance,
اللَّهُمَّ فَكَمَا أَمَرْتَ بِالتَّوْبَةِ وَضَمِنْتَ
الْقَبُولَ
121
122
as Thou hast urged supplication, and promised to
respond,
وَحَثَثْتَ عَلَى الدُّعَـاءِ وَوَعَدْتَ الإجَابَةَ،
122
123
so also bless Muhammad and his Household, accept my
repentance,
فَصَلِّ عَلَى مُحَمَّدِ وَآلِهِ وَاقْبَلْ تَوْبَتِي
123
124
and return me not to the returning place of
disappointment in Thy mercy!
وَلاَ تَرْجِعْني مَرجَعَ الخَيبَةِ منْ رَحْمَتِك
124
125
Surely Thou art “Ever-turning” (2:128) toward the
sinners,
إنَّكَ أَنْتَ التَّوَّابُ عَلَى الْمُذْنِبِينَ،
125
126
“All-compassionate” (2:128) toward the offenders who
turn back!
وَالرَّحِيمُ لِلْخَاطِئِينَ الْمُنِيبِينَ.
126
127
O God, bless Muhammad and his Household just as Thou
hast guided us by him!
أللَّهُمَّ صَلِّ عَلَى مُحَمَّد وَآلِهِ كَمَا
هَدَيْتَنَا بِهِ
127
128
Bless Muhammad and his Household just as Thou hast
rescued us through him!
وَصَلِّ عَلَى مُحَمَّد وَآلِهِ كَمَا
اسْتَنْقَذْتَنَا بِهِ،
128
129
Bless Muhammad and his Household,
وَصَلِّ عَلَى مُحَمَّد وَآلِهِ
129
130
with a blessing that will intercede for us on the
Day of Resurrection, the day of neediness toward
Thee!
صَلاَةً تَشْفَعُ لَنَا يَوْمَ الْقِيَامَةِ وَيَوْمَ
الْفَاقَةِ إلَيْكَ،
130
131
“Thou art powerful over everything” (3:26), and that
is easy for Thee!
إنَّكَ عَلَى كُلِّ شَيْء قَدِيرٌ وَهُوَ عَلَيْكَ
يَسِيرٌ .
131

পরম করুণাময় এবং অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি

পাপের জন্য অনুশোচনা করে তাঁর একটি মুনাজাত।
হে প্রভু, আপনার জন্য ঐ ধরনের প্রশংসা যা বর্ণনা করা যায় না। হে প্রভু, আপনার কাছে আমার এমন প্রত্যাশা যা মলিন হতে পারে না। হে প্রভু, আপনার কাছে নেককার বান্দাদের প্রতিদান নষ্ট হতে পারে না। হে প্রভু আপনার সত্তাই বান্দাদের জন্য ভয়ের কারণ। হে প্রভু, আপনার সত্তাই ধার্মিকদের অতিরিক্ত অনুকম্পার কারণ, এ অবস্থা হল তার যার পাপের হাত (পাপ করা) গুটিয়ে গেছে।
দোষের লাগাম দ্বারা যে উপড়ে গেছে এবং যার উপর শয়তান জয়লাভ করেছে।
তাই সে আপনি যা হুকুম করেছেন, ভ’লে যাওয়ার দ্বারা সে এটা করতে অপারগ হয়েছে।
আপনার ক্ষমতার ব্যাপারে অজ্ঞ এমন একজনের মত সে আপনার নিষেধ করা বিষয়ে লেগে রয়েছে।
অথবা তার মত সে আপনার বদান্যতা অস্বীকার করে ঐ সময় পর্যন্ত যখন পথ নির্দেশের চোখ খুলে যায় এবং তার কাছ থেকে অন্ধত্বের মেঘ সরে যায়। যখন সে পুরোপুরিভাবে অনুধাবন করতে পারে যে তার আত্মা এবং চিন্তায় তার স্রষ্টার প্রতি সে কি অবিচারই না করেছে।
তাই সকল দিক থেকেই সে তার অপরাধের জঘন্নতা দেখেছে।
সে তার বিরোধিতার মস্ত অপরাধ দেখতে পেয়েছে।
সেজন্য আপনার সামনে লজ্জিত হয়ে, আপনার দিকে ঝুঁকে, আপনার প্রতি বিশ্বাস স্থাপন করে, তার প্রত্যাশা পুরণের জন্য এবং ভয়ের কারণে একাগ্রতার সাথে আপনার প্রতি প্রত্যাবর্তন করে, আপরি ব্যতীত সকল ভীতি প্রদর্শনকারী বস্তু হতে মুক্ত হওয়ার জন্য আপনার সাহায্যের জন্য সে আপনার দিকে প্রত্যাবর্তন করেছে। বিমুখ হওয়া থেকে তাকে রক্ষা করুন।
সেজন্য ভক্তি সহকারে সে আপনার সত্তার সামনে দাঁড়িয়েছে।
নম্রভাবে তার চোখগুলোকে মাটির দিকে স্থাপন করে।
আপনার মহত্তের সামনে বিনয়ের সাথে মাথা ঝুঁকিয়ে।
আত্মার হীনমন্যতায় সে অপরাধ করেছে, যা আপনি তার চেয়ে বেশি জানেন। এবং সে অগনিত পাপ করেছে যার সংখ্যা আপনি জানেন।
সে ঐ সমস্ত বড় গুনাহ্ থেকে নিষ্কৃতি চায় যা আপনার জ্ঞানের ভিতরে সে করার বাসনা করে এবং ঐ সমস্ত কদর্যতা থেকে যা আপনার হুকুমের বেলায়, তাকে অনুগ্রহ বঞ্চিত করে।এবং ঐ সমস্ত গুনাহ্রে মজা হতে যা তাকে পরিত্যাগ করে এবং চলে যায়, যা চিরস্থায়ী হয়।
সে আপনার বিচার অস্বীকার করে না, হে প্রভু, যদি আপনি তাকে শাস্তি দেন।
সে আপনার ক্ষমাকে এত বড় দেখে যে, সে ক্ষমা প্রত্যাশা করে এবং করুনা প্রত্যাশা করে। বিশেষত আপনি দয়াশীল মালিক যিনি বড় গুনাহ্ মাফ করতে সংকোচ বোধ করেন না।
সেজন্য দেখুন, হে প্রভু,।
আমি এখানে।
আপনার কাছে প্রার্থনায় এবং হুকুম পালনের মাধ্যমে আপনার কাছে হাজির হয়েছি, আপনার প্রতিশ্রুতির প্যর্ণতার আশায় যেখানে আপনি প্রতিশ্রুতি পূরণের অঙ্গঅকার করেছেন। আপনি বলেছেন, “আমাকে ডাক। আমি তোমাদের কথা মনোযোগ দিয়ে শুনব।”
হযরত মুহাম্মদ এবং তাঁর বংশধরদের উপর অনুগ্রহ করুন।
আমার প্রতি আপনার ক্ষমা প্রদর্শন করুন যেমন আমি আপনার দিকে ঝুঁকেছি।
পাপের দ্বারা অন্তর রুদ্ধ করা থেকে জাগিয়ে তুলুন যেহেতু আপনার সামনে আমার আত্মাকে নত করেছি। আপনার পর্দা দ্বারা আমাকে লুকিয়ে রাখুন যেহেতু আপনি আমার প্রতিশোধ পরায়ণ শাস্তি স্থগিত করেছেন।
হে প্রভু, আপনার আনুগত্য করার সময় আমার সঙ্কল্প বাস্তবায়ন করুন।
আপনাকে ভক্তি করার জন্য আমার ভিতর দিককে শক্তিশালী করুন।
ঐ কাজসমূহ করার জন্য আমাকে অনুগ্রহ করুন যা আমার অপরাধ ধুয়ে দিবে।
যখন আপনি আমাকে মরার জন্যই বানিয়েছেন, তখন আমাকে আপনার এবং আপনার রাসূল হযরত মুহাম্মদ (তাঁর উপর শান্তি বর্ষিত হোক)-এর দ্বীনে মৃত্যু বরণ করার তৌফিক দিন।
হে প্রভু, এ অবস্থায় আমি আপনার কাছে অনুশোচনা করছি আমার কবিরা গুলাহ্ সমূহের জন্য,
সগিরা গুণাহ্ সমূহের জন্য,
প্রকশ্যি গুণাহ্ সমূহের জন্য,
গোপন এবং আমার পুরাতন গুণাহ্সমূহের জন্য।
এবং তাদের গুণাহুসমূহ মাফ করে দিন যারা অতিসম্প্রতি আপনার কাছে অনুশোচনা করেছে, যারা তাদের দিলে (এখন) আপনাকে অমান্য করার কথা বলে না, অথবা পাপে ফিরে যাওয়ার চিন্তাও করে না।
বিশেষত হে প্রভ, আপনি আপনার কিতাবে বলেছেন, যে আপনি আপনার বান্দাদের তওবা কবুল করবেন, তাদের গুণাহ্ মাফ করবেন এবং যারা তওবা করবে তাদেরকে ভালবাসবেন। সেজন্য, আপনি আমার তওবা কবুল করুন, যেমন আপনি প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। আমার গুণাহ্সমূহ ক্ষমা করুন, যেমনÑ আপনি নিশ্চয়তা দিয়েছেন। আমাকে আপনার ভালবাসা দিন যেমন আপনি চেয়ে থাকেন। আমি আপনাকে বলছি, হে প্রভু আপনি যা ঘৃণা করেন তাতে আমি আর ফিরে যাব না, আমি নিশ্চয়তা দিচ্ছি যে আপনি যা অনুমোদন করেন না তাতে আমি পুনরায় যাব না, এবং আমি প্রতিশ্রুতি দিচ্ছিযে আপনার অবাধ্যতার সমস্ত কাজকর্ম আমি পরিহার করব।
হে প্রভু, বিশেষত আপনি ভাল করে জানেন যে আমি কি করেছি। সেজন্য, আপনি যা জানেন তাতে আমাকে ক্ষমা করুন। আপনার ক্ষমতার দ্বারা আপনি যা ভালবাসেন তাতে আমাকে ঘুরিয়ে দিন
হে প্রভু, আমি এ সমস্ত কাজের বাধ্যবাধকতায়, যার কিছু অংশ আমি স্বরণ করতে পারছি না এবং যার কিছু অংশ আমি ভুলে গেছি, কিন্তু এ কাজ সবই আপনার চোখের সামনে সংঘটিত হয়েছে যা কখনও ঘুমায় না। আর কাজগুলো আপনার জ্ঞানের সম্মুখে যা কখনও কোনো কিছু ভুলে না।সেজন্য, আপনি ঐগুলোর ক্ষতিপূরণ দিন যা আমা হতে সংঘটিত হয়েছে। আমার কাছ হতে এর ওজন হালকা করে দিন এ সকল কাজের প্রণরায় নিকটবর্তী হওয়া থেকে আমাকে রক্ষা করুন।
হে প্রভু, বিশেষত আমি আমার অনুশোচনায় বিশ্বাসী হতে পারভি না (আমি শঙ্কিত)Ñ
আপনার হেফাজতে রক্ষা করুন।
আমার পরিবর্তন হওয়াকে ধরে রাখতে পারছি না।
আপনার ক্ষমতার দ্বারা রক্ষা করুন।
সেজন্য, পর্যাপ্ত পরিমাণে শক্তি দিয়ে আমাকে শক্তিশালী করুন।
কার্যকরী হেফাজতে আমাকে রক্ষা করুন।
হে প্রভু, যে সুষ্টিই আপনার কাছে তওবা করে, আপনার অসম্মতিতে সে নিশ্চিতভাবে তার প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করে এবং তার পাপ ও বদ অভ্যাসে ফিরে আসে।তাই আমি আপনার হেফাজত কামনা করছি, এরকম (বিপথগামী) হওয়ার বিপক্ষে।
সেজন্য আমার এই তওবাকে চ’ড়ান্ত তওবা হিসেবে কবুল করুন যার পরে আমার যেন আর তওবার প্রয়োজন না হয়Ñ এটা যেন এমন এক তওবা করা হয় যাতে অতীতকৃত পাপ স্বীকার করা হয় এবং বাকি জীবন নিরাপদ থাকা যায়।
হে প্রভু, আমার অজ্ঞতার জন্য আমি আপনার কাছে ক্ষমা চাচ্ছি।
আমার কৃতকর্মের জন্য আমি আপনার ক্ষমা প্রার্থনা করছি।
সেজন্য, আপনার বদান্যতায় আমাকে আপনার ক্ষমা দ্বারা নক্ষা করুন।
আপনার নিরাপত্তার পর্দা দ্বারা আমাকে ঢেকে দিন।
আমি সবাকছু থেকে আপনার তওবা করছি যা আপনার ইচ্ছার বিরুদ্ধে ছিল অথবা আমার দিলে ঐ ভাবনা যা আপনার ভালবানার প্রকিবন্ধক।এবং ঐ সকল কাজের জন্য তওবা করছি যা আমি চোখের চাহনিতে এবং জবানের দ্বারা করেছি। যা দ্বারা আপনার শাস্তি থেকে সকল অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ নিরাপদ থাকে অখবা আপনার ভীষণ গোসসার ভয় থেকে যেন নিস্কৃতি দেন।
সেজন্য, হে প্রভু, আপনার অসীম ধৈর্যের দ্বারা আমার কৃতকর্ম ক্ষমা করুন। আপনার ভয়ের কারণে যা আমার দিলে ভীণলভাবে কামড় দেয়।
আপনার ভয়ে যা আমার অঙ্গ-প্রত্যঙ্গে কাঁপুনি সৃষ্টি করে, হে আমার রিযিকদাতা। আমার গুণাহ্সমূহ আপনার ধৈর্য্যর দ্বারা আমাকে এ অবস্থায় ফেলেছে যাতে আমি নিরব থাকি। আমার হয়ে কেউই কথা বলবে না।
যদি আমি মধ্যস্থতাকারী চাই, আমি তা পাবার অধিকার রাখি না। আর আমি তা পাব না।
হে প্রভু, হযরত মুহাম্মদ এবং তাঁর বংশধরদের উপর অনুগ্রহ করুন। আমার ভুলের জন্য আপনার ক্ষমা প্রদর্শন করুন। আপনার ক্ষমার দ্বারা আমার খারাবি দূর করে দিন। আমি আপনার যে শাস্তির আশঙ্কা করছি তা আমার উপর বর্তিয়ে দিয়েন না।
আমার উপর আপনার বদান্যতা মেলে ধরুন।
আপনার পর্দা দ্বারা আমাকে ঢেকে দিন।
আমার সাথে ঐ মোয়ামেলা করুন যা একজন সম্মানিত মনিব করুনার বশবর্তী হয়ে তার এক সহায় সম্বলহীন দাসের সাথে থাকে, যে ক্ষমা চায়। অথবা যেমন একজন সম্পদশালী তার সামনে হাজির হওয়া এক অভাবীর সাথে করে থাকে।
হে পভু, আপনার থেকে আমাকে আশ্রয় দিতে পারে এমন কেউ নেই, সেজন্য আপনার মহিমা আমাকে রক্ষা করবে। আপনার সাথে মধ্যস্থতা করার জন্য কেউ নেই। সেজন্য, আপনার দয়াই মধ্যস্থতা করবে। বিশেষত অপরাধসমূহ আমাকে আতঙ্কিত করেছে, সেজন্য আপনার ক্ষমাই আমাকে আশাম্বিত করবে। আমি যা কিছু বলেছি তা আমার অপরাধের অজ্ঞতার জন্য নয়, অথবা আমার পূর্বের দূষণীয় কাজের বিষ্মরণের জন্যও নয়। কিন্ত তা এজন্য যে আমি যে মর্ম-বেদনা এবং অনুশোচনা আপনার কাছে ব্যক্ত করেছি তা আপনার আসমানবাসী এবং জমীনবাসীরা শুনবে। যার দ্বারা আমি আপনার আশ্রয় লাভ করতে পারি। এই আশা করে যে আপনার অনুগ্রহ ও করণার কারণে আমার এই প্রতিক’ল আবস্থার জন্য অথবা আমার গুনাহ্রে স্তুপের কারণ তাদের মধ্যে কেউ হয়ত আমার জন্য দোয়া করতে পারে। যা আমার মধ্যস্থতাকারী হিসেবে কাজ করবে এবং যা আমার আবেদন হতে উৎকৃষ্ট হবে, । এবং আপনার গোসসা হতে পরিত্রাণের কারণ হবে। আর যা আপনার কবুলিয়ত অর্জনে সফল হবে।
হে প্রভু, আমার মর্মবেদনা পর্যাপ্ত হয়ে থাকলে, বিশেষত আমি তাদের মধ্যে সবচেয়ে উৎকৃষ্ট মমূ-বেদনাকারী যারা অনুশোচনা করে। যদি আপনার অবাধ্যতা পরিত্যাগ করে পরিবর্তন হয়, তখন আমি পরিবর্তনশীলদের মাঝে অগ্রগণ্য। যদি ক্ষমা প্রার্থনার দ্বারা গুণাহ্ দূর হয় তখন আমি তাদের অন্তর্ভূক্ত যারা আপনার কাছে ক্ষমা চায়।
হে প্রভু, যেহেতু আপনি অনুতাপ করাকে ভালবাসেন, কবুলিয়তের নিশ্চয়তা দিয়ে থাকেন এবং প্রার্থনা করতে উৎসাহিত করেছেন এবং তার জববাব দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। সেজন্য মিনতি করছি, হযরত মুহাম্মদ এবং তাঁর বংশধরদের উপর অনুগ্রহ করুন।
আমার তওবা কবুল করুন।
আমাকে আপনার ক্ষমা থেকে পিছনে রেখে নিরাশ করিয়েন না।
বিশেষত, আপনার সত্তা হল গুনাহ্গারদের এবং অনুতাপীদের তওবা কবুলকারী মহান সত্তা, যা আপনার কাছে নিয়ে যান।
হে প্রভু, হযরত মুহাম্মদ এবং তাঁর বংশধরদের উপর অনুগ্রহ করুন। আপনি যেমন তার দ্বারা আমাদেরকে পথ নির্দেশ দিয়েছেন।
হযরত মুহাম্মদ এবং তাঁর বংশধরদের উপর অনুগ্রহ করুন। যেমন তার দ্বারা আপনি আমাদেরকে অব্যহতি দিয়েছেন।
হযরত মুহাম্মদ এবং তাঁর বংশধরদের উপর অনুগ্রহ করুন, পুণরুখান দিবসে এবং অভাবের দিবসে আমাদের জন্য আপনার সাথে মধ্যস্থতাকারী হতে পারে।
বিশেষত সবকিছুর উপর আপনার ক্ষমতা বিদ্যমান এবং আপনার জন্য সবকিছুই সহজ।
Ref: হযরত ইমাম জয়নাল আবেদীন আল ছহীফাহ্ আল সাজ্জাদীয়াহ্
অনুবাদ মুহাম্মদ মাঈনউদ্দিন
অন্যধারা, ৩৮/২-ক বাংলাবাজার (৫ম তলা) ঢাকা-১১০০
প্রকাশকাল : সেপ্টেম্বর ২০০৮
বাংলা অনুবাদ: প্রকাশক ২০০৮