মোনাফিকের বর্ণনা
আমরা আল্লাহর প্রশধ্বংসা করি তার অনুগত থাকার সাহায্যের জন্য, তার অবাধ্যতা থেকে আমাদেরকে রক্ষা করার জন্য এবং শুকুর করি তার নেয়ামতের জন্য ও তাঁর রশি ধারণ করার ক্ষমতা প্রদান করার জন্য। আমরা সাক্ষ্য দিচ্ছি মুহাম্মদ (সঃ) তার বান্দা ও রাসুল। তিনি আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য সকল দুঃখকষ্ট বরণ করে নিয়েছিলেন এবং আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য সকল শোক সহ্য করেছিলেন। তার নিকট আত্মীয়রা নিজেদেরবে পরিবর্তন করে তাঁর পক্ষে দাঁড়িয়েছিল এবং দূরবর্তী আত্মীয়গণ দলবদ্ধভাবে তার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছিল ; আরবরা তার বিরুদ্ধে ঘোড়ার লাগাম ঢিলা করে দিয়েছিল (অর্থাৎ দ্রুত তাঁর বিরুদ্ধে দলবদ্ধ হয়েছিল)। তাদের বাহনের পেটে আঘাত করে তারা তাঁর বিরুদ্ধে প্রবৃত্ত হয়েছিল। অবস্থা এমন হয়েছিল যে, দূর দূরান্ত থেকে শত্রু তাঁর বিরুদ্ধে তাঁর দোরগোড়ায় উপস্থিত হয়েছিল।
হে আল্লাহর বান্দাগণ, আমি তোমাদেরকে উপদেশ দিচ্ছি, তোমরা আল্লাহকে ভয় কর এবং মোনাফেক। সম্পর্কে আমি তোমাদের সতর্ক করে দিচ্ছি। কারণ তারা নিজেরা গোমরাহ এবং
অন্যদেরকেও গোমরাহ করে। তারা নিজেরা আছাড় খেয়েছে এবং অন্যদেরকেও আছািড় খাওয়াতে চায়। তারা বহুরূপী এবং বহু পথ অবলম্বন করে। তারা তোমাকে তাদের অনুসারী করতে ওৎপেতে থাকে এবং সকল প্রকারের সহায়তা নিয়ে তোমার দিকে এগিয়ে আসে। তাদের মুখমন্ডল পরিচ্ছন্ন হলেও হৃদয় রোগাক্রান্ত। তারা গোপনে চলাফেরা করে এবং রুপ্নের মতো পদচারণা করে। তাদের কথা চিকিৎসার মতো কিন্তু তাদের কর্মকান্ড দুরারোগ্য ব্যাধির মতো। তারা অন্যের আরাম-আয়েশে ঈৰ্ষাপরায়ণ; তারা অন্যের দুঃখ-কষ্ট বৃদ্ধি করে এবং আশা-ভরসা বিনষ্ট করে। তাদের শিকার প্রতিটি পথে পড়ে আছে; প্রতিটি হৃদয়ে তারা প্রবেশ করতে পারে এবং শোকাহত মানুষের জন্য তারা লোক-দেখানো (মিথ্যা) অশ্রু ফেলে। তারা একে অপরের প্রশধ্বংসা করে এবং একে অপরের কাছ থেকে পুরস্কার আশা করে। যখন তারা কোন কিছু যাচুনা করে তখন তা পেতে জেদ ধরে; যখন তারা কাউকে দোষারোপ করে তখন তার সম্মানহানী করে এবং যখন তারা রায় প্রদান করে তখন তাতে বাড়াবাড়ি করে। প্রতিটা সত্যের জন্য তারা একটা ভুল পথ অবলম্বন করে এবং প্রতিটা সরল-সহজ পথের জন্য তারা বক্রপথ উদ্ভাবনকারী। প্রতিটা জীবিত ব্যক্তির জন্য তারা এক একটা হত্যাকারী। প্রতিটা রুদ্ধদ্বারের জন্য তারা এক একটা চাবি এবং প্রতিটা বাতির জন্য তারা এক একটা নির্বাপণকারী। তারা কামনা করে কিন্তু হতাশার সাথে যাতে তাদের বাজার ঠিক থাকে এবং তাদের পণ্য সহজে জনপ্রিয় হয়। যখন তারা কথা বলে তখন সংশয় সৃষ্টি করে; যখন তারা বর্ণনা করে তখন অতিরঞ্জিত করে। প্রথমে তারা সহজ পথের কথা বলে কিন্তু পরে তা সংকীর্ণ করে ফেলে। সংক্ষেপে, তারা হলো শয়তানের দল এবং আগুনের ইন্ধন। শয়তান তাদেরকে পেয়ে বসেছে । সুতরাং তারা আল্লাহর জেকের ভুলে গেছে, তারা শয়তানের দলভুক্ত; সাবধান, নিশ্চয়ই শয়তানের দল ক্ষতিগ্ৰস্থ (কুরআন-৫৮ টা ১৯) ।