উমাইয়াদের স্বৈরশাসন ও অত্যাচার সম্পর্কে
তোমাদের মধ্যে যারা বয়ঃকনিষ্ঠ তারা বয়ঃজ্যেষ্ঠদের অনুসরণ করবে এবং বয়ঃজ্যেষ্ঠগণ। কনিষ্ঠগণের প্রতি সদয় আচরণ করবে। জাহেলিয়া যুগের রূঢ় লোকদের মতো হয়ে না। যারা দ্বিনের চর্চা করে নি এবং আল্লাহর ব্যাপারে তাদের বুদ্ধিমত্তা কাজে লাগায় নি। তাদের নিয়ে বিপজ্জাজনক পাখীর বাসায় ডিম ভেঙ্গে দেয়ার অবস্থা দাঁড়িয়েছে। কারণ ডিম ভাঙ্গার কাজ দেখতে খারাপ দেখায়। আবার না ভাঙ্গা মানেই হলো বিপদজনক পাখীর সসংখ্যা বেড়ে যাওয়া ।
তাদের ঐক্যের পর তাদের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি হবে এবং তারা তাদের কেন্দ্র থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে ছড়িয়ে পড়বে। তাদের কতেক লোক শাখার সঙ্গে লেগে থাকবে এবং শাখা নুয়ে পড়লে তারাও নুয়ে পড়বে। মহিমান্বিত আল্লাহ যেদিন তাদেরকে শরতের ছড়ানো ছিটানো মেঘের মতো একত্রিত করবে: সেদিনটি উমাইয়াদের জন্য বড়ই দুর্ভাগ্যজনক হবে। আল্লাহ তাদের মধ্যে মায়া-মমতার সঞ্চার করবেন। তারপর তিনি তাদেরকে একটা শক্তিশালী জনগোষ্ঠীতে পরিণত করবেন। এরপর তিনি তাদেরকে তাদের যাত্রাস্থল থেকে প্রবাহিত হবার জন্য দরজা খুলে দেবেন যেভাবে বন্যা প্রবাহিত হয়েছিল সাবার দুটি বাগান থেকে, যে প্রবাহ থেকে উচু পর্বত ও ছোট পাহাড় কিছুই রক্ষা পায় নি এবং পাহাড়, পর্বত, উচু ভূমি কোন কিছুই সেই প্রবাহ থামিয়ে দিতে পারে নি। আল্লাহ তাদেরকে উপত্যকার নিচু ভূমিতে ছড়িয়ে দেবেন এবং তিনি তাদেরকে স্রোতের মতো সারা পৃথিবীতে প্রবাহিত করবেন। তিনি তাদের মাধ্যমে একজনের অধিকার অন্যজনকে দিয়ে হরণ করাবেন এবং একজনের ঘরে অন্যজনকে বসবাসের ব্যবস্থা করবেন। আল্লাহর কসম, তাদের সকল মর্যাদা, সুনাম ও প্রতিপত্তি এমনভাবে গলে যাবে যেভাবে আগুনে চর্বি গলে যায় ।
হে জনমন্ডলী, যদি তোমরা সত্যকে সমর্থন করা কৌশলে এড়িয়ে না যেতে এবং অন্যায়কে ধ্বংস করতে দুর্বলতা অনুভব না করতে তাহলে যারা তোমাদের সমকক্ষ ছিল না তাদের লক্ষ্যস্থলে তোমরা পরিণত হতে না এবং যারা তোমাদেরকে পরাভূত করেছিল তারা তা করতে পারতো না। কিন্তু বনি ইসরাইলের মতো তোমরা (অবাধ্যতার) মরুভূমিতে ঘুরে বেড়িয়েছিলো। আমার জীবনের শপথ করে বলছি যে, আমার পরে তোমাদের দুঃখ-দুৰ্দশা বহুগুণ বেড়ে যাবে। কারণ তোমরা সত্যকে পরিত্যাগ করবে, আপনজনের সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করবে এবং দূরবতীগণের সাথে আত্মীয়ের সম্পর্ক স্থাপন করবে। জেনে রাখো, যে ব্যক্তি তোমাদেরকে হেদায়েতের দিকে আহবান করছিলো তোমরা যদি তাকে অনুসরণ করতে তবে তিনি তোমাদেরকে রাসুলের (সঃ) পথে নিয়ে যেতেন। তাতে তোমরা গোমরাহির বিপদ থেকে রক্ষা পেতে এবং সেক্ষেত্রে তোমাদের ঘাড় থেকে অন্যায়ের বোঝা নামিয়ে ফেলতে পারতে।