হযরত আলী (আঃ) কে কেন মাওলা বলা হয় —

মাওলা আলী —

বার ইমামীয়া শীয়ারা যখন বলে – “মাওলা আলী” তখন আমাদের ফতোয়াদন্ড জাগ্রত হয় !
আমরা বলি নাউযুবিল্লাহ ..
শুধু এতটুকু বলেই থামিনা বরং শীয়া কুফফার ! শীয়া কাফের !!
কারন শীয়ারা আলীকে মাওলা বলে ! শীয়াদের এত বড় সাহস ?

আসলে “মাওলা” শব্দের অর্থ না জানলে যা হয় এখানে তাই হয়েছে !

অথচ একই শব্দ – আমরা সুন্নীরা হর হামেশাই ব্যবহার করছি তাতে কিন্ত সমস্যা নেই !
আমরা হরহামেশা বিড়ালকে বাঘ বানাচ্ছি অথচ শীয়ারা বাঘকে বাঘ বলায় আমাদের যত আপত্তি !

পাঠক ,
আসুন জেনে নেই –
“মাওলা” শব্দের প্রকৃত অর্থ হচ্ছে – অভিবাবক , নেতা , বন্ধু ইত্যাদি । এধরনের অর্থবোধক শব্দে মাওলা কথাটি ব্যবহর হয় ।

বিদায় হজ্ব থেকে ফেরার পথে গাদীরে খুম নামক স্থানে লক্ষাধিক হজ্ব ফেরৎ হাজি সাহাবাদের সম্মুখে স্বয়ং রাসূল (সাঃ) নিজে বলেছেন —
‘ আমি যার মাওলা , এই আলী তার মাওলা । আমার পরে আলী হবে মুমিনদের মাওলা ‘ ।

তাহলে রাসুল (সাঃ) এর নির্দেশ মোতাবেক ইমাম আলী (আঃ) কে শীয়ারা মাওলা বললে আপনার আমার এত ফতোয়াগিরি হয় কেন ?
কেন আমাদের এত গাত্রদাহ হয় ?

পাঠক ,
দয়া করে আরও লক্ষ করুন –
আমরা সাধারনত একজন আলেম কে নামের আগে মাওলানা যোগ করে বলি ।
মাওলানা অমুক মাওলানা তমুক ।

অথচ মাওলানা শব্দের অর্থ কি আমরা জানি ?
মাওলানা শব্দের উৎপত্তি মাওলা থেকে না হচ্ছে জমির যা দ্বারা বচন এবং নির্দিষ্ট করন বোঝায় ।
মাওলানা শব্দের অর্থ – আমাদের নেতা , আমাদের অভিবাবক , আমাদের বন্ধু এরকম বোঝায় ।

আসলে যে কোন বিষয় বিশেষ করে ধর্মের বিষয় না জানলে যা হয় তাই হয়েছে আমাদের ক্ষেত্রে ।
আমরা আমাদের ধর্মের বিষয় অপরের উপর এতটাই নির্ভরশীল হয়ে পড়েছি যে , নিজেরা যাচাই বাছাই করি না ।

আমাদের আলেমগন যা বলে আমরা তাই চোখ বন্ধ করে গ্রহন করি ।
আমরা এতটাই পরনির্ভরশীল যে , আমরা একটিবার কোরআন পড়ে বা হাদীস খুলে দেখার প্রয়োজনবোধ করিনা ।
সব থেকে যেটা ভয়ংকর সেটা হচ্ছে যে , আমি যা বুঝি সেটিই সত্য ও সঠিক এবং বাকীরা সব ভ্রান্ত ।

পরমত পরসহিঞ্চুতা – এ বিষয়টা আমাদের মধ্যে নেই বললেই চলে ।
আমাদের অবস্থা সেই কূয়োর মধ্যে ব্যাঙের মত ! কূয়োটাকেই আমরা মহাসমুদ্র বলে মনে করি ।
তাই আসুন , এবারে চোখ মেলে বিশ্বটাকে দেখার চেষ্টা করি ।

সত্য ও মিথ্যার প্রভেদকারী হল পবিত্র কোরআন ।
বাংলা অনুবাদ সহ পবিত্র কোরআন পড়ি এবং সেই সাথে ইসলামিক বিভিন্ন স্কলারদের কিতাব সমূহ পাঠ করি ।
কথা দিলাম , আমাদের প্রচলিত দৃষ্টিভংগী পাল্টে যাবে ।
সকলকে ধন্যবাদ ।

 

SKL