দোয়া ২২ কষ্ট এবং প্রতিবন্ধকতার সময়

5 months ago najafi 0

اللُمور
His
Supplication in Hardship, Effort, and Difficult Affairs
1
O God, Thou hast charged me concerning myself with
that which belongs more to Thee than to me.
أَللَّهُمَّ إنَّكَ كَلَّفْتَنِي مِنْ نَفْسِي مَا
أَنْتَ أَمْلَكُ بِهِ مِنِّي،
1
2
Thy power over it and over me is greater than my
power,
وَقُدْرَتُكَ عَلَيْهِ وَعَلَيَّ أَغْلَبُ مِنْ
قُدْرَتِي،
2
3
so give me in myself what will make Thee pleased
with me
فَأَعْطِنِي مِنْ نَفْسِي مَا يُرْضِيْكَ عَنِّي،
3
4
and take for Thyself Thy good pleasure in my self’s
well-being!
وَخُذْ لِنَفْسِكَ رِضَاهَا مِنْ نَفْسِي فِي
عَافِيَة.
4
5
O God, I have no endurance for effort, no patience
in affliction,
أللَّهُمَّ لاَ طَاقَةَ لِي بِالجَهْدِ ، وَلاَ صَبْرَ
لِي عَلَى البَلاَءِ،
5
6
no strength to bear poverty. So forbid me not my
provision
وَلاَ قُوَّةَ لِي عَلَى الْفَقْرِ، فَلاَ تَحْظُرْ
عَلَيَّ رِزْقِي،
6
7
and entrust me not to Thy creatures, but take care
of my need alone and Thyself attend to sufficing me!
وَلاَ تَكِلْنِيْ إلَى خَلْقِكَ بَلْ تَفَرَّدْ
بِحَاجَتِي، وَتَولَّ كِفَايَتِي،
7
8
Look upon me and look after me in all my affairs,
وَانْظُرْ إلَيَّ وَانْظُرْ لِي فِي جَمِيْعِ
اُمُورِي،
8
9
for if Thou entrustest me to myself, I will be
incapable before myself
فَإنَّكَ إنْ وَكَلْتَنِي إلَى نَفْسِي عَجَزْتُ
عَنْهَا،
9
10
and fail to undertake that in which my best interest
lies.
وَلَمْ اُقِمْ مَا فِيهِ مَصْلَحَتُهَا،
10
11
If Thou entrustest me to Thy creatures, they will
frown upon me,
وَإنْ وَكَلْتَنِي إلَى خَلْقِكَ تَجَهَّمُونِي،
11
12
and if Thou makest me resort to my kinsfolk, they
will refuse to give to me;
وَإنْ أَلْجَأتَنِيْ إلَى قَرَابَتِي حَرَمُونِي،
12
13
if they give, they will give little and in bad
temper,
وَإنْ أَعْطَوْا أَعْطَوْا قَلِيْلاً نَكِداً،
13
14
making me feel long obliged and blaming me much.
وَمَنُّوا عَلَيَّ طَوِيلاً وَذَمُّوا كَثِيراً.
14
15
So through Thy bounty, O God, free me from need,
through Thy mightiness, lift me up,
فَبِفَضْلِكَ أللَّهُمَّ فَأَغْنِنِي، وَبِعَظَمَتِكَ
فَانْعَشنِي،
15
16
through Thy boundless plenty, open my hand, and with
that which is with Thee, suffice me!
وَبِسَعَتِكَ فَابْسُطْ يَدِي، وَبِمَا عِنْدَكَ
فَاكْفِنِي.
16
17
O God, bless Muhammad and his Household,
أللَّهُمَّ صَلِّ عَلَى مُحَمَّد وَآلِهِ،
17
18
rid me of envy, encircle me against sins,
وَخَلِّصْنِي مِنَ الْحَسَدِ، وَاحْصُرْنِي عَن
الذُّنُوبِ،
18
19
make me abstain from things unlawful, give me not
the boldness of disobedient acts,
وَوَرِّعْنِي عَنِ الْمَحَارِمِ، وَلا تُجَرِّئْنِي
عَلَى الْمَعَاصِي،
19
20
assign me love for that which is with Thee and
satisfaction with that which comes to me from Thee,
وَاجْعَلْ هَوايَ عِنْدَكَ، وَرِضَايَ فِيمَا يَرِدُ
عَلَيَّ مِنْكَ،
20
21
bless me in that which Thou providest me, that which
Thou conferrest upon me,
وَبَارِكْ لِي فِيْمَا رَزَقْتَنِي، وَفِيمَا
خَوَّلْتَنِي،
21
22
and that through which Thou favourest me, and make
me in all my states
وَفِيمَا أَنْعَمْتَ بِهِ عَلَيَّ، وَاجْعَلْنِي فِي
كُلِّ حَالاَتِي
22
23
safeguarded, watched, covered, defended, given
refuge, and granted sanctuary!
مَحْفُوظَاً مَكْلُوءاً مَسْتُوراً مَمْنُوعاً
مُعَاذاً مُجَاراً.
23
24
O God, bless Muhammad and his Household
أللَّهُمَّ صَلِّ عَلَى مُحَمَّد وَآلِهِ
24
25
and let me accomplish everything which Thou hast
enjoined upon me or made obligatory for me toward
Thee, in one of the ways of Thy obedience,
وَاقْضِ عَنِّي كُلّ مَا أَلْزَمْتَنِيهِ وَفَرَضْتَهُ
عَلَيَّ لَكَ فِي وَجْه مِنْ وُجُوهِ طَاعَتِكَ،
25
26
or toward one of Thy creatures, though my body be
too frail for that, my strength too feeble,
أَوْ لِخَلْق مِنْ خَلْقِكَ وَإنْ ضَعُفَ عَنْ ذَلِكَ
بَدَنِي، وَوَهَنَتْ عَنْهُ قُـوَّتِي،
26
27
my power not able to reach it, and my possessions
and what my hand owns not encompass it, and whether
I have remembered it or forgotten it.
وَلَمْ تَنَلْهُ مَقْدِرَتِي، وَلَمْ يَسَعْهُ مَالِي
وَلاَ ذَاتُ يَدِي، ذَكَرْتُهُ أَوْ نَسِيتُهُ
27
28
It, my Lord, is among that which Thou hast counted
against me while I have been heedless of it in
myself.
هُوَ يَا رَبِّ مِمَّا قَدْ أَحْصَيْتَهُ عَلَيَّ
وَأَغْفَلْتُهُ أَنَا مِنْ نَفْسِي،
28
29
Let me perform it through Thy plentiful giving and
the abundance which is with Thee
فَأَدِّهِ عَنِّي مِنْ جَزِيْلِ عَطِيَّتِكَ وَكَثِيرِ
مَا عِنْدَكَ،
29
30
– for Thou art Boundless, Generous – so that nothing
of it may remain against me,
فَإنَّكَ وَاسِعٌ كَرِيمٌ حَتَّى لاَ يَبْقَى عَلَيَّ
شَيْ مِنْهُ
30
31
lest Thou wouldst wish to settle accounts for it
from my good deeds
تُرِيدُ أَنْ تُقَاصَّنِي بِهِ مِنْ حَسَنَاتِي،
31
32
or to compound my evil deeds on the day I meet Thee,
my Lord!
أَوْ تُضَاعِفَ بِهِ مِنْ سَيِّئاتِي يَوْمَ أَلْقَاكَ
يَا رَبِّ.
32
33
O God, bless Muhammad and his Household
أَللَّهُمَّ صَلِّ عَلَى مُحَمَّد وَآلِهِ
33
34
and provide me with desire to serve Thee for the
sake of my state in the hereafter,
وَارْزُقْنِي الرَّغْبَةَ فِي الْعَمَـلِ لَكَ
لآخِـرَتِي،
34
35
such that I know the truthfulness of that [desire]
in my heart,
حَتَّى أَعْرِفَ صِدْقَ ذلِكَ مِنْ قَلْبِي،
35
36
be dominated by renunciation while in this world,
وَحَتَّى يَكُونَ الْغَالِبُ عَلَيَّ الزُّهْدُ فِي
دُنْيَايَ،
36
37
do good deeds with yearning,
وَحَتَّى أَعْمَلَ الْحَسَنَاتِ شَوْقاً،
37
38
and remain secure from evil deeds in fright and
fear!
وَآمَنَ مِنَ السَّيِّئاتِ فَرَقاً وَخَوْفاً،
38
39
And give me ‘a light whereby I may walk among the
people’ (ref.6:122), be guided in the shadows,
وَهَبْ لِي نُوراً أَمْشِي بِهِ فِي النَّاسِ،
وَأَهْتَدِي بِهِ فِي الظُّلُماتِ،
39
40
and seek illumination in doubt and uncertainty!
وَأَسْتَضِيءُ بِهِ مِنَ الشَّكِّ وَالشُّبُهَـاتِ .
40
41
O God, bless Muhammad and his Household
اللّهُمَّ صَلِّ عَلَى مُحَمَّد وَآلِهِ
41
42
and provide me with fear of the threatened gloom
وَارْزُقْنِي خَوْفَ غَمِّ الْوَعِيْـدِ،
42
43
and yearning for the promised reward, such that I
may find the pleasure of that for which I supplicate
Thee
وَشَوْقَ ثَوَابِ الْمَوْعُودِ حَتَّى أَجِدَ لَذَّةَ
مَا أَدْعُوكَ لَهُ،
43
44
and the sorrow of that from which I seek sanctuary
in Thee!
وَكَأْبَةَ مَا أَسْتَجِيرُ بِكَ مِنْهُ.
44
45
O God, Thou knowest what will set my affairs right
in this world and the next,
أللَّهُمَّ قَـدْ تَعْلَمُ مَا يُصْلِحُنِي مِنْ
أَمْرِ دُنْيَايَ وَآخِـرَتِي،
45
46
so be ever gracious toward my needs!
فَكُنْ بِحَوَائِجِيْ حَفِيّاً.
46
47
O God, bless Muhammad and Muhammad’s Household
أللَّهُمَّ صَلِّ عَلَى مُحَمَّد وَآلِ مُحَمَّد
47
48
and provide me with what is Thy right when I fall
short in thanking Thee
وَارْزُقْنِي الْحَقَّ عِنْدَ تَقْصِيرِي فِي
الشُّكْرِ لَكَ
48
49
for that through which Thou hast favoured me in ease
and difficulty, health and sickness,
بِمَا أَنْعَمْتَ عَلَيَّ فِي اليُسـرِ وَالْعُسْرِ
وَالصِّحَّـةِ وَالسَّقَمِ
49
50
such that I may come to know in myself repose in
satisfaction
حَتَّى أَتَعَرَّفَ مِنْ نَفْسِي رَوْحَ الرِّضَا
50
51
and serenity of soul in that which Thou hast made
incumbent upon me
وَطُمَأنِينَةَ النَّفْسِ مِنِّي بِمَا يَجِبُ لَكَ
فِيمَا يَحْدُثُ
51
52
in whatever states may occur: fear and security,
فِي حَالِ الْخَوْفِ وَالاَمْنِ،
52
53
satisfaction and displeasure, loss and gain!
وَالرِّضَا وَالسُّخْطِ، وَالضَّرِّ وَالنَّفْعِ.
53
54
O God, bless Muhammad and his Household
أللَّهُمَّ صَلِّ عَلَى مُحَمَّد وَآلِهِ
54
55
and provide me with a breast safe from envy,
وَارْزُقْنِي سَلاَمَةَ الصَّدْرِ مِنَ الْحَسَدِ
55
56
such that I envy none of Thy creatures and in
anything of Thy bounty
حَتَّى لاَ أَحْسُدَ أَحَداً مِنْ خَلْقِكَ عَلَى
شَيْء مِنْ فَضْلِكَ،
56
57
and such that I see none of Thy favours toward any
of Thy creatures
وَحَتَّى لاَ أَرى نِعْمَـةً مِنْ نِعَمِـكَ عَلَى
أَحَد مِنْ خَلْقِكَ
57
58
in religion or this world, well-being or reverential
fear,
فِي دِيْن أَوْ دُنْيا، أَوْ عَافِيَة أَوْ تَقْوَى،
58
59
plenty or ease, without hoping for myself better
than it
أَوْ سَعَة أَوْ رَخاء، إلاّ رَجَوْتُ لِنَفْسِي
أَفْضَلَ ذلِكَ،
59
60
through and from Thee alone, who hast no associate!
بِكَ وَمِنْكَ وَحْدَكَ لاَ شَرِيكَ لَكَ.
60
61
O God, bless Muhammad and his Household
أللَّهُمَّ صَلِّ عَلَى مُحَمَّـد وَآلِـهِ
61
62
and provide me with caution against offenses
وَارْزُقْنِي التَّحَفُّظَ مِن الْخَطَايَا،
62
63
and wariness against slips in this world and the
next
وَالاحْتِرَاسَ مِنَ الزَّلَلِ فِي الدُّنْيَا
وَالآخِرَةِ،
63
64
in the state of satisfaction and wrath,
فِي حَالِ الرِّضَا وَالْغَضَبِ،
64
65
such that I may remain indifferent toward that which
enters upon me from the two states,
حَتَّى أكُونَ بِمَا يَرِدُ عَلَيَّ مِنْهُمَا
بِمَنْزِلَة سَوَاء،
65
66
work toward Thy obedience, and prefer it and Thy
good pleasure over all else in both friends and
enemies.
عَامِلاً بِطَاعَتِكَ مُؤْثِراً لِرِضَاكَ عَلَى مَا
سِوَاهُمَا فِي الأَوْلِياءِ وَالأعْدَاءِ
66
67
Then my enemy may stay secure from my wrongdoing and
injustice
حَتّى يَأْمَنَ عَدُوِّي مِنْ ظُلْمِي وَجَوْرِي،
67
68
and my friend may despair of my inclination and the
bent of my affection.
وَيَيْأَسَ وَلِيِّي مِنْ مَيْلِي وَانْحِطَاطِ هَوَايَ،
68
69
Make me one of those who supplicate Thee with
sincerity in ease
وَاجْعَلنِي مِمَّنْ يَدْعُوكَ مُخْلِصاً في الرَّخَاءِ
69
70
with the supplication of those who supplicate Thee
with sincerity in distress!
دُعَـاءَ الْمُخْلِصِينَ الْمُضْطَرِّينَ لَـكَ فِي
الدُّعَاءِ
70
71
Verily Thou art Praiseworthy, Glorious.
إنَّكَ حَمِيدٌ مَجيدٌ .
71

পরম করুণাময় এবং অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি

কষ্ট এবং প্রতিবন্ধকতার সময় তাঁর একটি মুনাজাত।কষ্ট এবং প্রতিবন্ধকতার সময় তাঁর একটি মুনাজাত।হে প্রভু, ঐ বিষয়ে আপনার কাজ বাকী রয়েছে যাতে আমি এবং আমার দিলের চেয়ে আপনার অধিক ক্ষমতা রয়েছে। এটার উপরে এবং আমার উপরে আমার চেয়ে আপনার কর্তৃত্ব বেশি রয়েছে।রসজন্য, আমাকে আমার আত্মার সাথে না থেকে আমার সাথেই থাকতে দিন যা আপনাকে সন্তুষ্ট করবে। শাস্তি এবং নিরাপত্তায় আপনি যাতে সন্তুষ্ট হবেন, আমার দিল থেকে তা নিন।হে প্রভু, কাজ করার জন্য আমার কোনো শক্তি নেই, বিচারের সময় আমার কোনো ধৈর্য্য নেই, দারিদ্রতা বয়ে বেড়াবার জন্য আমার কোনো ক্ষমতা নেই। সেজন্য, আমাকে রিযিক থেকে বঞ্চিত করিয়েন না। আমাকে আপনার সৃাষ্টর উপর নির্ভর করিয়েন না।উপরন্তু, এগুলো যোগান দেবার ভার নিন এবং আমার সকল কাজে আমার উপর নজর রাখুন।বিশেষত যদি আপনি আমার ইচ্ছায় বিশ্বাস করেন, আমি অপদস্ত হব, এর দ্বারা। এবং এর ভাল দিকসমূহ অর্জন করতে অক্ষম হব।যদি আপনি আপনার সৃষ্টিসমূহের চেয়ে আমার দিকে বেশি খেয়াল করেন, তারা আমার প্রতি কপাল কুচকাবে।যদি আপনি আমাকে জ্ঞাতবর্গের কাছে সমর্পণ করেন, তাহলে আমাকে নিরাশ করবে। তারা যদি আদৌ আমাকে কিছু দেয় তবে অনিচ্ছাভাবে খুব সামান্য দিবে, দীর্ঘদিন ধরে আমার নিন্দা রটাবে এবং প্রায়শই আমাকে খোঁটা দিবে। সেজন্য, আপনার অসীমতার দ্বারা , হে প্রভু, আমাকে স্বাধীন করুন। আপনার মহত্ত্বের দ্বারা আমাকে উন্নতি করুন। আপনার প্রাচুর্যের দ্বারা আমাকে ধনী করুন। আপনার ভান্ডার থেকে আমার চাহিদা যোগান দিন। হে প্রভু, হযরত মুহাম্মদ এবং তাঁর বংশধরদের উপর অনুগ্রহ করুন। ঈর্ষা থেকে আমাকে পৃথক রাখুন। পাপ তেকে আমাকে দূরে রাখুন। নিষেধ জিনিস করা হতে আমাকে রক্ষা করুন। অমান্যে উৎসাহিত হওয়া হতে আমাকে পবিত্র রাখুন। আমার প্রত্যাশা আপনার সাথে সম্পৃক্ত করুন, এবং আমাকে তাতে সন্তুষ্ট করুন যা আপনার কাছ থেকে আসে। আপনি আমাকে যা রিযিক দিয়েছেন তাতে  আমাকে অনুগ্রহ করুন। আমার জন্য আপনি যা নির্ধারণ করেছেন এবং যাতে আপনি আমাকে সাহায্য করেছে তাতে আপনি অনুগ্রহ করুন। সকল অবস্থায় আমাকে নিরাপদ, পথ-প্রদর্শিত, রক্ষিত, আচ্ছাদিত, হেফাজত, আশ্রিত এবং অটল রাখুন।হে প্রভু, হযরত মুহাম্মদ এবং তাঁর বংশধরদের উপর অনুগ্রহ করুন।আমার উপর যে সকল দায়িত্ব দিয়েছেন তা সম্পাদন করতে আমাকে সাহায্য করুন এবং আপনার প্রতি কর্তব্য পালনে অথবা আপনার সৃষ্টিসমূহের মধ্যে যে কারও লাভের জন্য যা কিছু আমার জন্য অবসম্ভাবী করেছেন তা করার জন্য সাহায্য করুন।যদি আমার শরীর তা করায় দূর্বল হয়, আমার শক্তি খুব কম হয়, আমার ক্ষমতা এটা করতে অপরাগ হলে আর আমার সম্পদ পর্যাপ্ত না হয়, আমি এটা মনে রাখি অথবা ভুলে যাই যা আপনি আমার স্বার্থ পরিপন্থি করে থাকেন, এ সম্বন্ধে আমার কোনো কিছু যদি স্বরণ না থাকে, তখন আপনি আপনার অপূর্ব সীমাহীন ক্ষমতা দ্বারা তা করার সামর্থ দিন, যা আপনার কাছে রয়েছে।বিশেষত, আপনার কাছে পর্যাপ্ত উপায় রয়েছে।আপনার সত্তা হল বদান্য।আমার কাছে এমন কিছু বাকি রেখেন না আমার নিক আমলগুলোকে ভাগ করে দেবঅথবা আমার পাপকাজকে কয়েক গুণে বৃদ্ধি করে দেবে, যেদিন আমি আমি সাথে সাক্ষাৎ করব। হে আমার রিযিকদাতা।হে প্রভু, হযরত মুহাম্মদ এবং তাঁর বংশধরদের উপর অনুগ্রহ করুন। এবং এই দুনিয়ার পর আমার ভালাই এর জন্য আপনার এবাদত করতে সাহায্য করুন, এর সত্য আমার হৃদয় দ্বারা অনুধাবন করা পর্যন্ত, এই দুনিয়ায় আমার উপর করুনা বিরাজমান অবস্থা পর্যন্ত, স্বেচ্ছায় নেক কাজ করা পর্যন্ত এবং ভয়ে এবং আতঙ্কে পাপ হতে নিরাপদ থাকা পর্যন্ত।আমাকে এক নূর দিয়ে সাহায্য করুন যাতে আমি লোকদের সাথে চলতে পারি, অন্ধকারে পথ প্রদর্শক পেতে পারি এবং দ্বিধা এবং অনিশ্চয়তার মাঝেও নিজেকে আলোকিত করতে পারি। হে পভু, হযরত মুহাম্মদ এবং তাঁর বংশধরদের উপর অনুগ্রহ করুন।  আমার ভিতরে ভয়ানক শাস্তির ভয়াবহতা এবং প্রতিশ্রুতিবদ্ধ প্রতিদানের প্রত্যাশা দিয়ে দিন, প্রকৃতপক্ষে ঐ আনন্দ চাক্ষুষ করা পর্যন্ত যা সম্বন্ধে আমি আপনার কাছে দোয়া করি। হে প্রভু, বিশেষত, আপনি জানেন যে এই দুনিয়া এবং তার পরবর্তী জীবনে আমার জন্য কি মানানসই।  সজন্য আমার চাহিদা পূরণ করুন। হে প্রভু, হযরত মুহাম্মদ এবং তাঁর বংশধরদের উপর অনুগ্রহ করুন।  যা সঠিক তা দ্বারা আমাকে সাহায্য করুন।আপনি যা আমাকে দান করেছেন উন্নতি, দারিদ্রতা, এবং স্বাস্থ্য ভাল অবস্থায় তার জন্য কৃতজ্ঞতা জানাতে পারি না। কবুলিয়াত এবং আমার আত্মার চেতনার সন্তুষ্টির আরাম অনুভব করা পর্যন্ত। যা সকল জিনিসে আপনার প্রাপ্য যা বিভিন্ন সময়ে ঘটে থকেঃভয়ের সময়,শাস্তির সময়,আনন্দের সময়, গোসসার সময়,হারানো এবং প্রাপ্তির সময়।হযরত মুহাম্মদ এবং তাঁর বংশধরদের উপর অনুগ্রহ করুন। আমার বুককে ঈর্ষা তেকে মুক্ত করে আমাকে সাহায্য করুন। আপনার অনুগ্রহে কোনোকিছুর জন্যই আমি যতক্ষণ না আপনার কোনো সৃষ্টিকে ঈর্ষা করি। এখানকার অথবা পরকালের যে কোনো ব্যাপারেই যতক্ষণ না আপনার কোনো সাহায্য আপনার কোনো সৃষ্টি দেখি, কল্যাণ অথবা করুণার, উন্নতি অথবা আরামে। কিন্তু শুধু আপনার কাছ থেকে আর আপনার কাছ থেকেই নিজের জন্য এদের চেয়ে বেশি প্রত্যাশা করি। আপনি একক, আপনার কোনো শরিক নেই। হে প্রভু, হযরত মুহাম্মদ এবং তাঁর বংশধরদের উপর অনুগ্রহ করুন।  ভুল থেকে আমাকে নিরাপদ রাখুন। সন্তুষ্টি এবং অসন্তুষ্টির ক্ষেত্রে এ দুনিয়া এবং পরকালে আমাকে ভুল থেকে নিরাপদ রাখুন।যতক্ষণ আমি সমমানে অধিষ্ঠিত থাকব, আমার ক্ষেত্রে যাই ঘটুক। এভাবে আপনাকে মান্য করে কাজ করে দিলের এক রাজত্বের ঘটনায়। আমার শত্রু আমার নির্যাতন এবং শোষণ হতে নিরাপদ থাকা পর্যন্ত, বন্ধু এবং শত্রুদের সাথে ব্যবহারের ক্ষেত্রে অন্য কিছু ব্যতিরেকে আপনার অনুমোদন পছন্দ করে।আর আমার বন্ধু আমার পক্ষপাতিত্ব এবং অমূলক আবেগের আশা ছেড়ে দেয়।আমাকে তাদের মত করুন যারা উন্নতির সময় একাগ্রচিত্তে আপনার প্রতি মনোনিবেশ করে।বিশেষত আপনার সত্ত্বা প্রশংসনীয় এবং মহৎ

Ref: হযরত ইমাম জয়নাল আবেদীন আল ছহীফাহ্ আল সাজ্জাদীয়াহ্
অনুবাদ মুহাম্মদ মাঈনউদ্দিন
অন্যধারা, ৩৮/২-ক বাংলাবাজার (৫ম তলা) ঢাকা-১১০০
প্রকাশকাল : সেপ্টেম্বর ২০০৮
বাংলা অনুবাদ:
প্রকাশক ২০০৮