দোয়া ২১ যখন কোনো কিছু তাঁকে আচ্ছন্ন করেছিল

3 months ago najafi 0

His Supplication in Sorrow
His Supplication when Something Made him Sorrowful and Offenses Made him Worry


دُعَاؤُهُ إِذَا حَزَنَهُ أَمْرٌ
When
Something made him Sorrowful
1
O God, O Sufficer of the isolated and weak and
Protector against terrifying affairs!
أَللَّهُمَّ يَا كَافِيَ الْفَرْدِ الضَعِيْفِ،
وَوَاقِيَ الامْرِ الْمَخُوْفِ،
1
2
Offenses have isolated me, so there is none to be my
companion.
أَفْرَدَتْنِي الْخَـطَايَا; فَـلاَ صَاحِبَ مَعِي،
2
3
I am too weak for Thy wrath and there is none to
strengthen me.
وَضَعُفْتُ عَنْ غَضَبِكَ; فَلاَ مُؤَيِّدَ لِي،
3
4
I have approached the terror of meeting Thee and
there is none to still my fear.
وَأَشْرَفْتُ عَلَى خَوْفِ لِقَائِكَ; فَلاَ مُسَكِّنَ
لِرَوْعَتِي،
4
5
Who can make me secure from Thee when Thou hast
filled me with terror?
وَمَنْ يُؤْمِنُنِي مِنْكَ وَأَنْتَ أَخَفْتَنِي؟
5
6
Who can come to my aid when Thou hast isolated me?
وَمَن يساعِدُنِي وَأَنْتَ أَفْرَدْتَنِي؟
6
7
Who can strengthen me when Thou hast weakened me?
وَمَنْ يُقَوِّيْنِي وَأَنْتَ أَضْعَفْتَنِي؟
7
8
None can grant sanctuary to a vassal, my God, but a
lord,
لاَ يُجيرُ يا إلهي إلاّ رَبٌّ عَلَى مَرْبُوب،
8
9
none can give security to one dominated but a
dominator,
وَلاَ يُؤْمِنُ إلاّ غالِبٌ عَلَى مَغْلُوب،
9
10
none can aid him from whom demands are made but a
demander.
وَلاَ يُعِينُ إِلاّ طالِبٌ عَلَى مَطْلُوب،
10
11
In Thy hand, my God, is the thread of all that, in
Thee the place of escape and flight,
وَبِيَـدِكَ يَـاَ إلهِي جَمِيعُ ذلِكَ السَّبَبِ،
وَإلَيْكَ الْمَفَرُّ وَالْمَهْربُ.
11
12
so bless Muhammad and his Household,
فَصَلِّ عَلَى مُحَمَّد وَآلِهِ
12
13
give sanctuary to me in my flight, and grant my
request!
وَأَجِرْ هَرَبِي وَأَنْجِحْ مَطْلَبِي.
13
14
O God, if Thou shouldst turn Thy generous face away
from me,
أللَّهُمَّ إنَّكَ إنْ صَرَفْتَ عَنِّي وَجْهَكَ
الْكَرِيْمَ،
14
15
withhold from me Thy immense bounty,
أَوْ مَنَعْتَنِي فَضْلَكَ الْجَسِيمَ،
15
16
forbid me Thy provision, or cut off from me Thy
thread,
أَوْ حَظَرْتَ عَلَيَّ رِزْقَكَ أَوْ قَطَعْتَ عَنِّي
سَبَبَـكَ
16
17
I will find no way to anything of my hope other than
Thee
لَمْ أَجِدِ السَّبِيـلَ إلَى شَيْء مِنْ أَمَلِي
غَيْرَكَ،
17
18
nor be given power over what is with Thee through
another’s aid, for I am Thy servant
وَلَمْ أَقْدِرْ عَلَى مَا عِنْدَكَ بِمَعُونَةِ
سِوَاكَ; فَإنِّي عَبْدُكَ،
18
19
and in Thy grasp; my forelock is in Thy hand. I have
no command along with Thy command.
وَفِي قَبْضَتِكَ نَاصِيَتِي بِيَدِكَ، لاَ أَمْرَ لِي
مَعَ أَمْرِكَ،
19
20
‘Accomplished is Thy judgement of me, just Thy
decree for me!’
مَاض فِيَّ حُكْمُكَ، عَدْلٌ فِيَّ قَضَاؤُكَ،
20
21
I have not the strength to emerge from Thy authority
وَلاَ قُوَّةَ لِي عَلَى الْخُـرُوجِ مِنْ
سُلْطَانِـكَ،
21
22
nor am I able to step outside Thy power.
وَلاَ أَسْتَطِيـعُ مُجَاوَزَةَ قُدْرَتِكَ،
22
23
I cannot win Thy inclination, arrive at Thy good
pleasure,
وَلاَ أَسْتَـمِيلُ هَوَاكَ، وَلاَ أبْلُغُ رِضَاكَ،
23
24
or attain what is with Thee except through obeying
Thee and through the bounty of Thy mercy.
وَلاَ أَنَالُ مَا عِنْدَكَ إلاَّ بِطَاعَتِكَ
وَبِفَضْل رَحْمَتِكَ.
24
25
O God, I rise in the morning and enter into evening
as Thy lowly slave.
إلهِي أَصْبَحْتُ وَأَمْسَيْتُ عَبْداً دَاخِراً لَكَ،
25
26
I own no profit and loss for myself except through
Thee.
لا أَمْلِكُ لِنَفْسِي نَفْعاً وَلاَ ضَرّاً إلاَّ
بِكَ
26
27
I witness to that over myself and I confess to the
frailty of my strength and the paucity of my
stratagems.
أَشْهَدُ بِذَلِكَ عَلَى نَفْسِي وَأَعْتَـرِفُ
بِضَعْفِ قُـوَّتِي وَقِلَّةِ حِيْلَتِي
27
28
So accomplish what Thou hast promised me and
complete for me what Thou hast given me,
فَأَنْجزْ لِي مَا وَعَدْتَنِي، وَتَمِّمْ لِي مَا
آتَيْتَنِي;
28
29
for I am Thy slave, miserable, abased, frail,
فَإنِّي عَبْـدُكَ الْمِسْكِينُ الْمُسْتكِينُ
الضَّعِيفُ
29
30
distressed, vile, despised, poor, fearful, and
seeking sanctuary!
الضَّـرِيـرُ الذَّلِيلُ الْحَقِيرُ الْمَهِينُ
الْفَقِيرُ الْخَائِفُ الْمُسْتَجِيرُ.
30
31
O God, bless Muhammad and his Household
أللَّهُمَّ صَلِّ عَلَى مُحَمَّد وَآلِهِ
31
32
and let me not forget to remember Thee in what Thou
hast done for me,
وَلاَ تَجْعَلْنِي نَاسِيَاً لِذِكْرِكَ فِيمَا
أَوْلَيْتَنِي،
32
33
be heedless of Thy beneficence in Thy trying me,
وَلاَ غافِلاً لإحْسَانِكَ فِيمَا أَبْلَيْتَنِي،
33
34
or despair of Thy response to me, though it keep me
waiting,
وَلا آيسَاً مِنْ إجَابَتِكَ لِي وَإنْ أَبْطَأتَ
عَنِّي
34
35
whether I be in prosperity or adversity, hardship or
ease,
فِي سَرَّاءَ كُنْتُ أَوْ ضَرَّاءَ، أَوْ شِدَّة أَوْ
رَخَاء،
35
36
well-being or affliction, misery or comfort,
أَوْ عَافِيَة أَوْ بَلاء، أَوْ بُؤْس أَوْ نَعْمَاءَ،
36
37
wealth or distress, poverty or riches!
أَوْ جِدَة أَوْ لأوَاءَ، أَوْ فَقْر أَوْ غِنىً.
37
38
O God, bless Muhammad and his Household,
أللَّهُمَّ صَلِّ عَلَى مُحَمَّد وَآلِهِ
38
39
make me laud Thee, extol Thee,
وَاجْعَلْ ثَنائِي عَلَيْكَ وَمَدْحِي إيَّاكَ
39
40
and praise Thee in all my states
وَحَمْدِي لَكَ فِي كُلِّ حَالاَتِي
40
41
so that I rejoice not over what Thou givest me of
this world
حَتَّى لاَ أَفْرَحَ بِمَا آتَيْتَنِي مِنَ
الدُّنْيَا،
41
42
nor sorrow over that of it which Thou withholdest
from me!
وَلاَ أَحْـزَنَ عَلَى مَا مَنَعْتَنِي فِيهَا،
42
43
Impart reverential fear of Thee to my heart,
وَأَشْعِرْ قَلْبِي تَقْوَاكَ،
43
44
employ my body in that which Thou acceptest from me,
وَاسْتَعْمِلْ بَدَنِي فِيْمَا تَقْبَلُهُ مِنِّي،
44
45
and divert my soul through obedience to Thee from
all that enters upon me,
وَاشْغَلْ بِطَاعَتِكَ نَفْسِي عَنْ كُلِّ مَايَرِدُ
عَلَىَّ
45
46
so that I love nothing that displeases Thee
حَتَّى لاَ اُحِبَّ شَيْئَاً مِنْ سُخْطِكَ،
46
47
and become displeased at nothing that pleases Thee!
وَلا أَسْخَطَ شَيْئـاً مِنْ رِضَـاكَ.
47
48
O God, bless Muhammad and his Household,
أللَّهُمَّ صَلِّ عَلَى مُحَمَّد وَآلِهِ
48
49
empty my heart for Thy love, occupy it with
remembering Thee,
وَفَرِّغْ قَلْبِي لِمَحَبَّتِكَ ، وَاشْغَلْهُ
بِذِكْرِكَ،
49
50
animate it with fear of Thee and quaking before
Thee,
وَانْعَشْهُ بِخَوْفِكَ ، وَبِالْوَجَلِ مِنْكَ،
50
51
strengthen it with beseeching Thee, incline it to
Thy obedience,
وَقَوِّهِ بِالرَّغْبَةِ إلَيْكَ، وَأَمِلْهُ إلَى
طَاعَتِكَ،
51
52
set it running in the path most beloved to Thee,
وَأَجْرِ بِهِ فِي أَحَبِّ السُّبُلِ إلَيْكَ،
52
53
and subdue it through desire for what is with Thee
all the days of my life!
وَذَلِّلْهُ بِالرَّغْبَةِ فِيمَا عِنْدَكَ أَيَّامَ
حَيَاتِي كُلِّهَا،
53
54
Let my provision in this world be reverential fear
of Thee (ref. 2:197),
وَاجْعَلْ تَقْوَاكَ مِنَ الدُّنْيَا زَادِي،
54
55
my journey be toward Thy mercy, and my entrance be
into Thy good pleasure!
وَإلَى رَحْمَتِكَ رِحْلَتِي، وَفِي مَرْضَاتِكَ
مَدْخَلِي.
55
56
Appoint for me a lodging in Thy Garden,
وَاجْعَلْ فِي جَنَّتِكَ مَثْوَايَ،
56
57
give me strength to bear everything that pleases
Thee,
وَهَبْ لِي قُوَّةً أَحْتَمِلُ بِهَا جَمِيعَ
مَرْضَاتِكَ،
57
58
make me flee to Thee and desire what is with Thee,
وَاجْعَلْ فِرَارِي إلَيْكَ، وَرَغْبَتِي فِيمَا
عِنْدَكَ،
58
59
clothe my heart in estrangement from the evil among
Thy creatures,
وَأَلْبِسْ قَلْبِي الْوَحْشَةَ مِنْ شِرارِ خَلْقِكَ.
59
60
and give me intimacy with Thee, Thy friends, and
those who obey Thee!
وَهَبْ لِي الأُنْسَ بِكَ وَبِأَوْلِيَـآئِكَ وَأَهْلِ
طَاعَتِكَ،
60
61
Assign to no wicked person or unbeliever a kindness
toward me
وَلاَ تَجْعَلْ لِـفَاجِـر وَلا كَافِر عَلَيَّ
مِنَّةً،
61
62
or a hand that obliges me, nor to me a need for one
of them!
وَلاَ لَـهُ عِنْدِي يَداً، وَلا بِي إلَيْهِمْ
حَاجَةً،
62
63
Rather make the stillness of my heart, the comfort
of my soul,
بَل اجْعَـلْ سُكُـونَ قَلْبِي وَاُنْسَ نَفْسِي
63
64
my independence and my sufficiency lie in Thee and
the best of Thy creatures!
وَاسْتِغْنَـائِي وَكِفَايَتِي بِكَ وَبِخِيَـارِ
خَلْقِكَ.
64
65
O God, bless Muhammad and his Household,
أللَّهُمَّ صَلِّ عَلَى مُحَمَّد وَآلِهِ،
65
66
make me their comrade, make me their helper,
وَاجْعَلْنِي لَهُمْ قَـرِيناً، وَاجْعَلْنِي لَهُمْ
نَصِيْراً،
66
67
and oblige me with yearning for Thee and doing for
Thee what Thou lovest and approvest!
وَامْنُنْ عَلَيَّ بِشَوْق إلَيْكَ، وَبِالْعَمَلِ لَكَ
بِمَا تُحِبُّ وَتَرْضَى
67
68
“Thou art powerful over everything” (3:26)
إنَّكَ عَلَى كُلِّ شَيْء قَدِيرٌ،
68
69
and that is easy for Thee.
وَذَلِكَ عَلَيْكَ يَسِيرٌ .
69

পরম করুণাময় এবং অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি

যখন কোনো কিছু তাকে আচ্ছন্ন করেছিল অথবা একটি ভুল ধারণা তাকে বিমর্ষ করেছিল তখন তাঁর একটি মুনাজাত।যখন কোনো কিছু তাকে আচ্ছন্ন করেছিল অথবা একটি ভুল ধারণা তাকে বিমর্ষ করেছিল তখন তাঁর একটি মুনাজাত।হে প্রভু, হে দূর্বল ব্যক্তির পথ প্রদর্শক। আপনি ভয়ানক জিনিসের বিরুদ্ধে হেফাজত দিয়ে থাকেন, ভুলগুলো আমাকে নিঃসঙ্গ করেছে। আপনার গোসসায় আমি দূর্বল হয়ে গেছি। আমাকে সমর্থন করার কেউ নেই। আমি আপনার সাথে সাক্ষাতের ভয়াবহতার ব্যাপারে হুঁশ পেয়েছি।আমার আশঙ্কায় আমাকে সান্তনা দেবার কেউ নেই, আর কেই বা আমাকে শক্তিশালী করতে পারে যখন আপনি আমাকে দূর্বল করেছেন। হে প্রভু, স্রষ্টা ছাড়া সৃষ্টিদেরকে আশ্রয় দেবার মত কেউ নেই। শক্তিশালী ব্যতিরেকে দূর্বলকে কেউ আশ্রয় দিতে পারে না।অšে¦ষণণকারী ব্যতিরেকে কেউ অšে¦ষণণ করা বস্তু জয়ের ক্ষেত্রে সাহায্য করে না।হে আমার প্রভু, সহায়তার সব রকম উপকরণ  আপনার হাতে বিদ্যমান। আপনার কাছে আবাস এবং আশ্রয়। অতপর, হযরত মুহাম্মদ এবং তাঁর বংশধরদের উপর অনুগ্রহ করুন। আমার পলায়নে আপনি আমাকে রক্ষা করুন।আমার প্রত্যাশা পূর্ণ করুন।হে প্রভু, যদি আপনি আমার বদান্যতা আমার কাছ থেকে ফিরিয়ে নিয়ে যান এবং আমার কাছে আপনার চমৎকার প্রাচুর্যকে উঠিয়ে নেন, অথবা আমার কাছ থেকে আপনার রিযিক ফিরিয়ে নেন অথবা আমার কাছ থেকে আপনার সম্পর্ক ছিন্ন করে দেন (আল্লাহ ও বান্দার সম্পর্ক), আপনাকে ছাড়া আমার আশার বস্তু বাস্তবত দান করতে আমি আর কোনো রাস্তা পাব না।আপনি ব্যতীত অন্য কারো সাহায্যে আপনার সাথে টেক্কা দেবার জন্য আমার কোনো শক্তি থাকবে না। বিশেষত আমি আপনার বান্দা এবং আপনার ক্ষমতার অধীন।আমার ভাগ্য হাতে। আপনার সাথে টেক্কা দেবার জন্য আমার কোনো ক্ষমতা নাই।আপনার উক্তি আমার ক্ষেত্রে কার্যকর হয়।আপনার ইচ্ছা আমার ক্ষেত্রে বিবেচিত হয়।আমার এমন কোনো শক্তি নাই যে আপনার রাজত্বের বাইরে চলে যাব, আপনার ক্ষমতার বাইরেও যেতে পারি না, আপনার ভালবাসাকে কাছে টানতেও পারি না অথবা আপনার কবুলিয়াত লাভ করতে পারি না, আপনার এবাদত করা এবং আপনার বদান্যতা ইচ্ছা অনুযায়ী কাজ করা ব্যতিরেকে আপনার সাথে যা আছে তা আমি অর্জন করতে পারি না।হে আমার প্রভু, সর্বক্ষণ আপনার বিনম্র সৃষ্টি হিসেবে আমি সকালে জাগি এবং সারাদিন মেহনত করি, আমার আত্মায় লাভ বা লোকসান পৌঁছানোর ক্ষমতা আমার নেই।কিন্তু আপনার মাধ্যমে আমি আমার আত্মার বিরুদ্ধে সাক্ষ্য বহন করছি আমার শক্তির দূর্বলতা বিবেচনা করছি এবং আমার সামর্থের স্বল্পতা। সেজন্য, আপনি যা প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তা পূর্ণ করুন। আমাকে যা দিয়েছেন তা মর্জিত করুন।বিশেষত আমি আপনার নম্র, দূর্বল, দুর্ধশাগ্রস্ত, ঘৃণ্য, জঘণ্য, প্রয়োজনীয়, অভাবী, ভীরু, বান্দা এবং আপনার আশ্রয় অšে¦ষণণ করছি।  হে প্রভু, হযরত মুহাম্মদ এবং তাঁর বংশধরদের উপর অনুগ্রহ করুন। আপনি যা আমাকে দিয়েছেন তার জন্য আমাকে আপনার স্বরণ থেকে ভুলিয়ে রেখেন না। আপনি আমার উপর যে অনুগ্রহ করেছেন তার জন্য আপনার গুণের অস্বীকার করা হতে বাঁচিয়ে রাখুন। কবুলিয়াতের ক্ষেত্রে আমাকে আশাহত করিয়েন না, যদিও আপনি সম্ভবত আমাকে সাহায্য করতে বিলম্ব করবেন। কোনো ব্যাপার নয় যদি আমি উন্নতি করি বা দরিদ্র হই বা কঠিন বা আরাম পাই অথবা নিরাপত্তা বা দুর্যোগে থাকি অথবা বঞ্চিত বা ধনশালী অথবা ধনের মালিক হই বা না হই অথবা দুঃখ বা সুখ পাই।  হে প্রভু, হযরত মুহাম্মদ এবং তাঁর বংশধরদের উপর অনুগ্রহ করুন। আমার সকল অবস্থায় আপনাকে সাধুবাদ জানাতে, প্রশংসা করতে এবং কৃতজ্ঞতা জানাতে তৌফিক দিন যাতে আমি ঐ জন্য আমি অতিরিক্ত আনান্দিত হয়ে না যাই  যা আমাকে এ দুনিয়ায় দান করেছেন, অথবা ঐ জিনিসে দুঃখিত না হই যা থেকে আমাকে প্রত্যাখান করেছেন।আপনার ভয়ের দ্বারা আমার দিলকে উৎসাহিত করুন।যাতে আমাকে কবুল করেছেন তাতে আমার দেহকে নিয়োজিত করুন।আপনার খেদমতে আমার দিলকে নিয়োজিত করুন, আমার ব্যাপারে যা কিছু ঘটে তা বিবেচনায় না এনে যাতে আমি এমন কোনো কিছু পছন্দ না করি যা আপনি পছন্দ করেন না, অথবা এমন কোনো কিছু অপছন্দ যেন না করি যা আপনি পছন্দ করেন।  হে প্রভু, হযরত মুহাম্মদ এবং তাঁর বংশধরদের উপর অনুগ্রহ করুন।  আপনার ভালবাসা ব্যতিরেকে আমার দিলকে অন্য সবকিছু থেকে খালি করুন। আমার দিলকে আপনার স্বরণে লাগিয়ে দিন। আপনার ভয়ে এটাকে উন্নিত করুন। আপনার প্রত্যাশায় এটাকে শক্তিশালী করুন। এটাকে আপনার সবচেয়ে ভালবাসার পথে চালনা করুন। আমার জীবনের দিনগুলো জুড়ে আপনার কাছে যা কিছু আরছ সেগুলো পাবার জন্য নরম করে দিন।এই দুনিয়া থেকে বিদায়ের প্রস্তুতির জন্য আপনাকে ভয় করার তৌফিক দিন।আমার বিদায়কে আপনার দয়ার দিকে চালনা করুন এবং আমার অভ্যন্তরকে আপনার কবুলিয়াত দ্বারা মালামাল করুন।    আপনার বেহেশতে আমার আবাসস্থল করে দিন।আমার যাত্রা আপনার দিকে এবং আমার প্রত্যাশা আপনার কাছে যা আছে তার জন্য করে দিন।আপনার নিকৃষ্ট মাখলুকের ঘৃণা দ্বারা আমার দিলকে আচ্ছাদিত করে দিন।আপনার জন্য, আপনার বন্ধুদের জন্য, এবং আপনার বান্দাদের জন্য আমার ভালবাসা কবুল করুন।আমাকে কোনো নিকৃষ্ট অথবা পাপী ব্যক্তির অধীন করে রেখেন না, অথবা আমার দ্বারা তার কোনো সহযেগিতা কোরেন না, তার কাছে আমার কোনো চাহিদা রেখেন না।অধিকিন্তু আমার দিলে প্রশান্তি দিন, আমার আত্মায় আরাম দিন, আপিনি আমাকে আমার স্বাধীনতা এবং আমার স্বয়ংসম্পূর্ণতা দান করুন এবং আপনার নেককার বান্দাদেরও।হে প্রভ, হযরত মুহাম্মদ এবং তাঁর বংশধরদের উপর অনুগ্রহ করুন।  হে প্রভু,  আমাকে তাদের সঙ্গী করুন। আমাকে তাদের সমর্থনকারী বানান।আপনার নিজ ইচ্ছায় আমাকে সাহায্য করুন। আপনার ভালবাসায় আমাকে করুণা দিন যা আপনি ভালবাসেন এবং অনুমোদন করেন।বিশেষত, সবকিছু আপনার স্কমতার অধীন, আর এটা আপনার জন্য আহ্ছান।

Ref: হযরত ইমাম জয়নাল আবেদীন আল ছহীফাহ্ আল সাজ্জাদীয়াহ্
অনুবাদ মুহাম্মদ মাঈনউদ্দিন
অন্যধারা, ৩৮/২-ক বাংলাবাজার (৫ম তলা) ঢাকা-১১০০
প্রকাশকাল : সেপ্টেম্বর ২০০৮
বাংলা অনুবাদ: প্রকাশক ২০০৮