দোয়া ১৬ গুনাহ্ হতে অব্যাহতি পাওয়ার জন্য বিনম্র অনুরোধ

5 months ago najafi 0

دُعَاؤُهُ فِي الِاسْتِقَالَةِ مِِن ذُنوبِهِ و طَلَبِ العَفو
In
Asking Release from sins and Seeking Pardon
1
O God, O He through whose Mercy sinners seek aid!
أللَّهُمَّ يَا مَنْ بِرَحْمَتِهِ يَسْتَغِيثُ
الْمُذْنِبُونَ،
1
2
O He to the remembrance of whose beneficence the
distressed flee!
وَيَا مَنْ إلَى ذِكْرِ إحْسَانِهِ يَفْزَعُ
الْمُضْطَرُّونَ،
2
3
O He in fear of whom the offenders weep!
وَيَا مَنْ لِخِيفَتِهِ يَنْتَحِبُ الْخَاطِئُونَ،
3
4
O Comfort of every lonely stranger!
يَا اُنْسَ كُلِّ مُسْتَوْحِشٍ غَرِيبٍِ،
4
5
O Relief of all who are downcast and distressed!
وَيَا فَرَجَ كُلِّ مَكْرُوبٍ كَئِيبٍ،
5
6
O Aid of everyone abandoned and alone!
وَيَا غَوْثَ كُلِّ مَخْذُوَلٍ فَرِيدٍ،
6
7
O Support of every needy outcast!
وَيَا عَضُدَ كُلِّ مُحْتَاجٍ طَرِيدٍ .
7
8
Thou art He who “embracest everything in mercy and
knowledge”! (40:7)
أَنْتَ الَّذِي وَسِعْتَ كُلَّ شَيْء رَحْمَةً
وَعِلْماً،
8
9
Thou art He who hast appointed for each creature a
share of Thy favours!
وَأَنْتَ الَّذِي جَعَلْتَ لِكُلِّ مَخْلُوق فِي
نِعَمِكَ سَهْماً،
9
10
Thou art He whose pardon is higher than His
punishment!
وَأَنْتَ الَّذِيْ عَفْوُهُ أَعْلَى مِنْ عِقَابِهِ،
10
11
Thou art He whose mercy runs before His wrath!
وَأَنْتَ الَّذِي تَسْعَى رَحْمَتُهُ أَمَامَ
غَضَبِهِ،
11
12
Thou art He whose bestowal is greater than His
withholding!
وَأَنْتَ الَّذِي عَطَآؤُهُ أكْثَرُ مِنْ مَنْعِهِ،
12
13
Thou art He by whose mercy all creatures are
embraced!
وَأَنْتَ الَّذِيْ اتَّسَعَ الْخَلاَئِقُ كُلُّهُمْ
فِي رَحمَتِهِ،
13
14
Thou art He who desires no repayment by him upon
whom He bestows!
وَأَنْتَ الَّذِي لا يَرْغَبُ فِي جَزَاءِ مَنْ
أَعْطَاهُ،
14
15
Thou art He who does not overdo the punishment of
him who disobeys Thee!
وَأَنْتَ الَّذِي لا يُفْرِطُ فِي عِقَابِ مَنْ
عَصَاهُ.
15
16
And I, my God, am Thy servant whom Thou commanded to
supplicate and who said:
وَأَنَا يَا إلهِي عَبْدُكَ الَّذِي أَمَرْتَهُ
بِالدُّعاءِ فَقَالَ:
16
17
I am at Thy service and disposal! Here am I, my
Lord, thrown down before Thee.
لَبَّيْكَ وَسَعْدَيْكَ، هَا أَنَا ذَا يَا رَبِّ
مَطْرُوحٌ بَيْنَ يَدَيْكَ،
17
18
I am he whose back offenses have weighed down!
أَنَا الَّذِي أَوْقَرَتِ الْخَطَايَا ظَهْرَهُ،
18
19
I am he whose lifetime sins have consumed!
وَأَنا الَّذِي أَفْنَتِ الذُّنُوبُ عُمْرَهُ،
19
20
I am he who was disobedient in his ignorance, while
Thou didst not deserve that from him!
وَأَنَا الَّذِي بِجَهْلِهِ عَصاكَ وَلَمْ تَكُنْ
أَهْلاً مِنْهُ لِذَاكَ.
20
21
Wilt Thou, my God, be merciful toward him who
supplicates Thee, that I should bring my
supplication before Thee?
هَلْ أَنْتَ يَا إلهِي رَاحِمٌ مَنْ دَعَاكَ
فَأُبْلِغَ فِي الدُّعَاءِ
21
22
Wilt Thou forgive him who weeps to Thee that I
should hurry to weep?
أَمْ أَنْتَ غَافِرٌ لِمَنْ بَكَاكَ فَأُسْرِعَ فِي
الْبُكَاءِ
22
23
Wilt Thou show forbearance toward him who puts his
face in the dust before Thee in lowliness?
أَمْ أَنْتَ مُتَجَاوِزٌ عَمَّنْ عَفَّرَ لَكَ
وَجْهَهُ تَذَلُّلاً
23
24
Wilt Thou free from need him who complains to Thee
of his indigent need with confidence?
أَم أَنْتَ مُغْن مَنْ شَكَا إلَيْكَ فَقْرَهُ
تَوَكُّلاً؟
24
25
My God, disappoint not him who finds no bestower
other than Thee,
إلهِي لاَ تُخيِّبْ مَنْ لا يَجدُ مُعْطِياً غَيْرَكَ،
25
26
and abandon not him who cannot be freed from his
need for Thee through less than Thee!
وَلاَ تَخْذُلْ مَنْ لا يَسْتَغْنِي عَنْكَ بِأَحَدٍ
دُونَكَ.
26
27
My God, so bless Muhammad and his Household,
إلهِي فَصَلِّ عَلَى مُحَمَّد وَآلِهِ
27
28
turn not away from me when I have turned my face
toward Thee,
وَلاَ تُعْرِضْ عَنِّي وَقَدْ أَقْبَلْتُ عَلَيْكَ ،
28
29
deprive me not when 1 have besought Thee,
وَلا تَحْرِمْنِي وَقَـدْ رَغِبْتُ إلَيْكَ،
29
30
and slap not my brow with rejection when I have
stood before Thee!
وَلا تَجْبَهْنِي بِالرَّدِّ وَقَدْ انْتَصَبْتُ
بَيْنَ يَدَيْكَ.
30
31
Thou art He who has described Himself by mercy,
أَنْتَ الَّذِي وَصَفْتَ نَفْسَكَ بِالرَّحْمَةِ،
31
32
so bless Muhammad and his Household and have mercy
upon me!
فَصَلِّ عَلَى مُحَمَّد وَآلِهِ وَارْحَمْنِي،
32
33
Thou art He who has named Himself by pardon so
pardon me!
وَأَنْتَ الَّذِي سَمَّيْتَ نَفْسَكَ بِالعَفْوِ،
فَاعْفُ عَنِّي.
33
34
Thou hast seen, my God, the flow of my tears in fear
of Thee,
قَـدْ تَرَى يَـا إلهِي فَيْضَ دَمْعِي مِنْ
خِيفَتِكَ،
34
35
the throbbing of my heart in dread of Thee,
وَوَجِيبَ قَلْبِي مِنْ خَشْيَتِكَ،
35
36
and the infirmity of my limbs in awe of Thee.
وَانْتِفَاضَ جَوَارِحِي مِنْ هَيْبَتِكَ،
36
37
All this from my shame before Thee because of my
evil works!
كُلُّ ذَلِكَ ح¡#1614;يآءً مِنِّي لِسُوءِ عَمَلِي،
37
38
So my voice has become silent, no longer crying to
Thee,
وَلِذَاكَ خَمَدَ صَوْتِي عَنِ الْجَارِ إلَيْكَ،
38
39
and my tongue has gone dumb, no longer whispering in
prayer.
وَكَلَّ لِسَانِي عَنْ مُنَاجَاتِكَ
39
40
My God, so to Thee belongs praise! How many of my
flaws Thou hast covered over without exposing me!
يَا إلهِي فَلَكَ الْحَمْدُ، فَكَم مِنْ عَائِبَةٍ
سَتَرْتَهَا عَلَيَّ فَلَم تَفْضَحْنِي،
40
41
How many of my sins Thou hast cloaked without making
me notorious!
وَكَمْ مِنْ ذنْبِ غَطَّيْتَهُ عَلَيَّ فَلَمْ
تَشْهَرْنِي،
41
42
How many faults I have committed, yet Thou didst not
tear away from me their covering,
وَكَمْ مِنْ شَائِبَة أَلْمَمْتُ بِهَا فَلَمْ
تَهْتِكْ عَنِّي سِتْرَهَا،
42
43
collar me with their detested disgrace,
وَلَمْ تُقَلِّدْنِي مَكْرُوهَ شَنَارِهَا،
43
44
or make their dishonour plain to those of my
neighbours who search for my defects
وَلَمْ تُبْدِ سَوْأَتِهَا لِمَنْ يَلْتَمِسُ
مَعَايِبِي مِنْ جِيْرَتِي،
44
45
and to those who envy Thy favour toward me!
وَحَسَدَةِ نِعْمَتِكَ عِنْدِي،
45
46
But that did not prevent me from passing on to the
evil that Thou knowest from me!
ثُمَّ لَمْ يَنْهَنِي ذَلِكَ عَنْ أَنْ جَرَيْتُ إلَى
سُوءِ مَا عَهِدْتَ مِنّي
46
47
So who is more ignorant than I, my God, of his own
right conduct?
فَمَنْ أَجْهَلُ مِنِّي يَا إلهِيْ بِرُشْدِهِ
47
48
Who is more heedless than I of his own good fortune?
وَمَنْ أَغْفَلُ مِنِّي عَنْ حَظِّهِ
48
49
Who is further than I from seeking to set himself
right?
وَمَنْ أَبْعَدُ مِنِّي مِنِ اسْتِصْلاَحِ نَفْسِهِ
49
50
For I spend the provision Thou deliverest to me
حِيْنَ اُنْفِقُ مَا أَجْرَيْتَ عَلَيَّ مِنْ رِزْقِكَ
50
51
in the disobedience Thou hast prohibited to me!
فِيمَا نَهَيْتَنِي عَنْهُ مِنْ مَعْصِيَتِكَ
51
52
Who sinks more deeply into falsehood and is more
intensely audacious in evil than I?
وَمَنْ أَبْعَدُ غَوْراً فِي الْبَاطِلِ وَأَشَدُّ
إقْدَاماً عَلَى السُّوءِ مِنّي
52
53
For I hesitate between Thy call and the call of
Satan
حِينَ أَقِفُ بَيْنَ دَعْوَتِكَ وَدَعْوَةِ
الشَّيْطَانِ،
53
54
and then follow his call without being blind in my
knowledge of him
فَـأتَّبعُ دَعْوَتَهُ عَلَى غَيْرِ عَمىً مِنّي فِيْ
مَعْرِفَة بِهِ،
54
55
or forgetful in my memory of him, while I am certain
وَلا نِسْيَان مِنْ حِفْظِي لَهُ وَأَنَا حِينَئِذ
مُوقِنٌ
55
56
that Thy call takes to the Garden and his call takes
to the Fire!
بِأَنَّ مُنْتَهَى دَعْوَتِكَ إلَى الْجَنَّةِ
وَمُنْتَهَى دَعْوَتِهِ إلَى النَّارِ
56
57
Glory be to Thee! How marvellous the witness I bear
سُبْحَانَكَ مَا أَعْجَبَ مَا أَشْهَدُ بِهِ
57
58
against my own soul and the enumeration of my own
hidden affairs!
عَلَى نَفْسِي وَاُعَدِّدُهُ مِنْ مَكْتُوْمِ أَمْرِي،
58
59
And more marvellous than that is Thy lack of haste
with me,
وَأَعْجَبُ مِنْ ذلِكَ أَنَاتُكَ عَنِّي
59
60
Thy slowness in attending to me! That is not because
I possess
وَإبْطآؤُكَ عَنْ مُعَاجَلَتِي وَلَيْسَ ذلِكَ
60
61
honour with Thee, but because Thou waitest patiently
for me
مِنْ كَرَمِي عَلَيْكَ بَلْ تَأَنِّياً مِنْكَ لِي،
61
62
and art bountiful toward me
وَتَفَضُّلاً مِنْكَ عَلَيَّ،
62
63
that I may refrain from disobedience displeasing to
Thee
لانْ أَرْتَـدِعَ عَنْ مَعْصِيَتِكَ الْمُسْخِطَةِ
63
64
and abstain from evil deeds that disgrace me,
وَاُقْلِعَ عَنْ سَيِّئَـاتِي الْمُخْلِقَةِ .
64
65
and because Thou lovest to pardon me more than to
punish!
وَلاَِنَّ عَفْوَكَ عَنّي أَحَبُّ إلَيْكَ مِنْ
عُقُوبَتِي،
65
66
But I, my God, am more numerous in sins,
بَلْ أَنَا يَا إلهِي أكْثَرُ ذُنُوباً
66
67
uglier in footsteps, more repulsive in acts,
وَأَقْبَحُ آثاراً وَأَشْنَعُ أَفْعَالاً
67
68
more reckless in rushing into falsehood,
وَأَشَدُّ فِي الْباطِلِ تَهَوُّراً
68
69
weaker in awakening to Thy obedience,
وَأَضْعَفُ عِنْدَ طَاعَتِكَ تَيَقُّظاً،
69
70
and less attentive and heedful toward Thy threats,
وَأَقَلُّ لِوَعِيْدِكَ انْتِبَاهاً وَارْتِقَاباً
70
71
than that I could number for Thee my faults
مِنْ أَنْ أُحْصِيَ لَكَ عُيُوبِي،
71
72
or have the power to recount my sins.
أَوْ أَقْدِرَ عَلَى ذِكْرِ ذُنُوبِي
72
73
I only scold my own soul, craving Thy gentleness,
وَإنَّمَا أُوبِّخُ بِهَذا نَفْسِي طَمَعَـاً فِي
رَأْفَتِكَ
73
74
through which the affairs of sinners are set right,
الَّتِي بِهَـا صَلاَحُ أَمْرِ الْمُذْنِبِينَ،
74
75
and hoping for Thy mercy, through which the necks of
the offenders are freed.
وَرَجَاءً لِرَحْمَتِكَ الَّتِي بِهَا فَكَاكُ رِقَابِ
الْخَاطِئِينَ.
75
76
O God, this is my neck, enslaved by sins,
اللَّهُمَّ وَهَذِهِ رَقَبَتِي قَدْ أَرَقَّتْهَا
الذُّنُوبُ،
76
77
so bless Muhammad and his Household and release it
through Thy pardon!
فَصَلِّ عَلَى مُحَمَّد وَآلِهِ وَأَعْتِقْهَا
بِعَفْوِكَ،
77
78
This is my back, weighed down by offenses,
وَهَذَا ظَهْرِي قَدْ أَثْقَلَتْهُ الْخَطَايَـا،
78
79
so bless Muhammad and his Household and lighten it
through Thy kindness!
فَصَلِّ عَلَى مُحَمَّد وَآلِهِ وَخَفِّفْ عَنْهُ
بِمَنِّكَ.
79
80
My God, were I to weep to Thee until my eyelids drop
off,
يَا إلهِي لَوْ بَكَيْتُ إلَيْكَ حَتَّى تَسْقُطَ
أَشْفَارُ عَيْنَيَّ ،
80
81
wail until my voice wears out,
وَانْتَحَبْتُ حَتَّى يَنْقَطِعَ صَوْتِي،
81
82
stand before Thee until my feet swell up,
وَقُمْتُ لَكَ حَتَّى تَتَنَشَّرَ قَدَمَايَ،
82
83
bow to Thee until my backbone is thrown out of
joint,
وَرَكَعْتُ لَكَ حَتَّى يَنْخَلِعَ صُلْبِي،
83
84
prostrate to Thee until my eyeballs fall out,
وَسَجَدْتُ لَكَ حَتَّى تَتَفَقَّأَ حَدَقَتَايَ،
84
85
eat the dirt of the earth for my whole life,
وَأكَلْتُ تُرَابَ الأرْضِ طُولَ عُمْرِي،
85
86
drink the water of ashes till the end of my days,
وَشَرِبْتُ مَاءَ الرَّمَادِ آخِرَ دَهْرِي
86
87
mention Thee through all of that until my tongue
fails,
وَذَكَرْتُكَ فِي خِلاَلِ ذَلِكَ حَتَّى يَكِلَّ
لِسَانِي
87
88
and not lift my glance to the sky’s horizons in
shame before Thee,
ثُمَّ لَمْ أَرْفَعْ طَرْفِي إلَى آفَاقِ السَّمَاءِ
اسْتِحْيَاءً مِنْكَ
88
89
yet would I not merit through all of that the
erasing of a single one of my evil deeds!
مَا اسْتَوْجَبْتُ بِذَلِكَ مَحْوَ سَيِّئَة وَاحِـدَة
مِنْ سَيِّئـاتِي،
89
90
Though Thou forgivest me when I merit Thy
forgiveness
وَإنْ كُنْتَ تَغْفِـرُ لِي حِيْنَ أَسْتَوْجِبُ
مَغْفِرَتَكَ
90
91
and pardonest me when I deserve Thy pardon,
وَتَعْفُو عَنِّي حِينَ أَسْتَحِقُّ عَفْوَكَ
91
92
yet I have no title to that through what I deserve,
فَإنَّ ذَلِكَ غَيْرُ وَاجِب لِيْ بِاسْتِحْقَاق،
92
93
nor am I worthy of it through merit,
وَلا أَنَا أَهْلٌ لَهُ بِـاسْتِيجَاب
93
94
since my repayment from Thee from the first that I
disobeyed Thee is the Fire!
إذْ كَـانَ جَزَائِي مِنْكَ فِي أَوَّلِ مَا
عَصَيْتُكَ النَّارَ;
94
95
So if Thou punishest me, Thou dost me no wrong.
فَإنْ تُعَذِّبْنِي، فَأَنْتَ غَيْرُ ظَالِم لِيْ.
95
96
My God, since Thou hast shielded me with Thy
covering and not exposed me,
إلهِي فَـإذْ قَـدْ تَغَمَّـدْتَنِي بِسِتْـرِكَ
فَلَمْ تَفْضَحْنِي
96
97
waited patiently for me through Thy generosity, and
not hurried me to punishment,
وَتَـأَنَّيْتَنِي بِكَـرَمِـكَ فَلَمْ تُعَـاجِلْنِي،
97
98
and shown me clemency through Thy bounty, and not
changed Thy favour upon me
َو حَلُمْتَ عَنِّي بِتَفَضُّلِكَ فَلَمْ تُغَيِّـرْ
نِعْمَتَـكَ عَلَيَّ،
98
99
or muddied Thy kindly acts toward me,
وَلَمْ تُكَـدِّرْ مَعْرُوفَكَ عِنْدِي
99
100
have mercy on my drawn out pleading, my intense
misery, and my evil situation!
فَارْحَمْ طُولَ تَضَرُّعِيْ وَشِـدَّةَ مَسْكَنَتِي
وَسُوءَ مَوْقِفِيْ.
100
101
O God, bless Muhammad and his Household,
اللَّهُمَّ صَلِّ عَلَى مُحَمَّد وَآلِهِ
101
102
protect me from acts of disobedience, employ me in
obedience,
وَقِنِي مِنَ الْمَعَاصِي وَاسْتَعْمِلْنِي
بِالطَّاعَةِ،
102
103
provide me with excellent turning back [to Thee],
purify me through repentance,
وَارْزُقْنِي حُسْنَ الإِنابَةِ وَطَهِّرْنِي
بِالتَّـوْبَةِ،
103
104
strengthen me through preservation from sin, set me
right through well being,
وَأَيِّـدْنِي بِالْعِصْمَةِ وَاسْتَصْلِحْنِي
بِالْعَافِيَةِ
104
105
let me taste the sweetness of forgiveness,
وَأَذِقْنِي حَلاَوَةَ الْمَغْفِـرَةِ،
105
106
make me the freedman of Thy pardon and the slave
released by Thy mercy,
وَاجْعَلْنِي طَلِيقَ عَفْـوِكَ، وَعَتِيقَ رَحْمَتِكَ
106
107
and write for me a security from Thy displeasure!
وَاكْتُبْ لِي أَمَاناً مِنْ سَخَطِكَ
107
108
Give me the good news of that in the immediate, not
the deferred – a good news I recognize –
وَبَشِّرْنِي بِذلِكَ فِي الْعَاجِلِ دُونَ الآجِلِ
بُشْرى أَعْرِفُهَا
108
109
and make known to me therein a sign which I may
clearly see!
وَعَرِّفْنِي فِيهِ عَلاَمَةً أَتَبَيَّنُهَا
109
110
That will not constrain Thee in Thy plenty,
إنَّ ذلِكَ لاَ يَضيقُ عَلَيْكَ فِي وُسْعِكَ ،
110
111
distress Thee in Thy power,
وَلا يَتَكَأَّدُكَ فِي قُدْرَتِكَ،
111
112
ascend beyond Thy lack of haste,
وَلا يَتَصَعَّدُكَ فِي أناتِكَ ،
112
113
or tire Thee in Thy great gifts, which are pointed
to by Thy signs.
وَلا يَؤودُك فِي جَزِيلِ هِباتِكَ الَّتِي دَلَّتْ
عَلَيْهَا آيَاتُكَ
113
114
Verily Thou dost what Thou wilt, Thou decreest what
Thou desirest.
إنَّكَ تَفْعَلُ مَا تَشَاءُ وَتَحكُمُ مَا تُرِيدُ،
114
115
“Thou art powerful over everything”. (3:26)
إنَّكَ عَلَى كُلِّ شَيْء قَدِيرٌ.
115

পরম করুণাময় এবং অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি

গুনাহ্ হতে অব্যাহতি পাওয়ার জন্য বিনম্র অনুরোধ করে তাঁর একটি মুনাজাত।গুনাহ্ হতে অব্যাহতি পাওয়ার জন্য বিনম্র অনুরোধ করে তাঁর একটি মুনাজাত। হে প্রভু, আপনিত সেই সত্ত্বা যার দয়ার দ্বারা পাপীগণ পাপ মাফের জন্য প্রার্থনা করে। আপনিত সেই সত্ত্বা যার অনুগ্রহের স্বরণে দুর্ধশাগ্রস্ত মুক্তি পায়। আপনিত সেই সত্ত্বা যার ভয়ে অপরাধী অবিরামভাবে কাঁদে হে প্রত্যেক বিমর্ষ লোকের সান্ত্বনাদানকারী। হেপ্রত্যেক ভাঙ্গা হৃদয়ের নির্যাতন ভোগকারীর আনন্দ। হে প্ররিত্যক্ত এবং একা ব্যক্তির প্রতিবিধানকারী।হে অভাব এবং নির্বাসিত ব্যক্তির সাহায্যকারী, যিনি তাঁর দয়া এবং ক্ষমার সাহায্যে সব কিছুকে ঘিরে আছেন।আপনিই প্রত্যেক সৃষ্টির জন্য আপনার অনুগ্রহের অংশ নির্ধারণ করেছেন।আপনার ক্ষমা আপনার শাসনের চেয়ে উপরে।আপনার দয়া শাসনের পূর্বেই তৎপর। আপনার বদান্যতা আপনার প্রত্যাখানের চেয়ে বেশি সহজলভ্য। আপনার ক্ষমতা এবং প্রাচুর্যতা সমস্ত মাখলুককে আলিঙ্গন করে।আপনি সেই সত্ত্বা যিনি তার কাছে কোনো প্রতিদান প্রত্যাশা করেন না যাকে আপনি অনুগ্রহ করেছেন। আপনি অমান্যকারীদের শাস্তি দেয়ার কোনো রকম অতিরঞ্জন করেন না তার প্রাপ্য শাস্তিই দিয়ে থাকেন)।আর হে প্রভু, আমি আপনার বান্দা যাকে আপনি প্রার্থনা করতে করতে বলেছেন এবং যিনি উত্তর দিয়েছেনঃ এখানে আমি আপনার আদেশ পালন করতে প্রস্তুত আছি! আপনার আমি এখানে! হে   প্রভু, দেখুন আমি আপনার সত্ত্বার সামনে অবনত।আমি এমন এক ব্যক্তি যার পিঠ দোষের দ্বারা বোঝাই হয়ে আছে। আমি এমন এক ব্যক্তি যার জীবন পাপের দ্বারা ক্ষয় হয়ে গেছে। আমি এমন এক ব্যক্তি যে অজ্ঞতার দরুণ আপনাকে অমান্য করেছিল যদিও আপনি আমার এটা প্রত্যাশা করেননি।হে প্রভু, আপনি কি এমন এক ব্যক্তিকে করুণা করবেন যে আপনার কাছে প্রার্থনা করে যাতে আমি আপনার কাছে মিনতি করতে পারি?অথবা আপনি কি এমন ব্যক্তিকে ক্ষমা করবেন যে আপনার কাছে ক্রন্দন করে যাতে আমি কাঁদতে তৎপর হতে পারি?হে প্রভু, অথবা আপনি কি এমন এক ব্যক্তিকে করুনা করবেন যে মিনতির ঢংয়ে আপনার সামনে মাথা ময়লায় মাথা নত করে? অথবা আপনি কি এমন ব্যক্তিকে উন্নতি দান করবেন যে আত্মবিশ্বাসের সাথে আপনার কাছে দারিদ্রতার অভিযোগ করে?হে প্রভু, আপনি এমন এক ব্যক্তিকে নিরাশ করেন না আপনি ব্যতীত যার কোনো দেনেওয়ালা নেই। আপনি একন এক ব্যক্তিকে অনুগ্রহ হতে বঞ্চিত কোরেন না আপনি ব্যতিরেকে যে আর কাউকে সাহায্য পাওয়ার জন্য কাছে টানতে চায় না। হে প্রভু, সেজন্য, হযরত মুহাম্মদ এবং তাঁর বংশধরদের উপর অনুগ্রহ করুন। আমার কাজ থেকে দূরে সরে যাবে না যেখানে আমি আপনার দিকে এসেছি। আমাকে নিরাশ কোরেন না যেখানে আমি আপনার দিকে ঝুঁকেছি। নারাজির দ্বারা আমার চেহারাকে মলিন করেন না যেখানে আপনার সামনে দাঁড়িয়ে আছি।আপনি এমন এক সত্ত্বা যিনি দয়ার সাহায্য নিজেই দিয়েছেন। সেজন্য, হযরত মুহাম্মদ এবং তাঁর বংশধরদের উপর অনুগ্রহ করুন। এবং আমার উপর করুণা করুন। আপনি আপনার নাম করণ করেছেন ক্ষমাশীল। সেজন্য, আমাকে ক্ষমা করুন।বিশেষত, হে প্রভু, আপনি দেখেছেন আপনাকে ভয় করার কারণে আমার অশ্রুধারা, আপনার ভয়াবহতার জন্য আমার দিলের ধুঁক-ধুঁকানি, এবং আপনার আতঙ্কে আমার অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের কাঁপুনি, যাতে আপনি আমাকে উৎসাহ দিয়েছেন। লজ্জায় এ সমস্ত ফল আমি আমার পাপ কাজসমূহ হতে অনুভব করছি। এ কারণে আমার স্বর এতই অবধ্বণিত হয়েছে যে আপনার কাছে কাঁদতে পারছি না এবং আমার জিহ্বা এতই বিকলাঙ্গ হয়েছে যে আপনার কাছে প্রার্থনা করতে পারছি না। সেজন্য, হে প্রভু, সকল প্রশংসা আপনার জন্য।আপনি আমার অনেক দোষ অবলোকন করেছেন কিন্তু আমাকে অনুগ্রহ হতে বঞ্চিত করেননি। আপনি আমার অনেক পাপ গোপন করে দিয়েছেন যা আমি করেছি এবং আমার কুখ্যাতি করেননি। আপনি অনেক ভুলকে ঢেকে দিয়েছেন যেগুলো আমি করেছিলাম এবং ঐ সমস্ত দুর্নীতির ফসল আমার গলায় বেঁধে দেননি। আপনি াামার ঐ সমকল প্রতিবেশিদের পাপকে ঢাকেননি যারা আমার দোষগুলো তালাশ করছিল এবং ঐ সকল লোকদের যারা আপনার অনুগ্রহের হিংসা করত, আমি যার অধিকারী। এ সমস্ত সাহায্য আমাকে জঘন্যতম ফলাফল থেকে নিষ্কৃতি দিতে পারেনি যাতে আপনি কোনো হুমকী দেন নি। সেজন্য হে প্রভু, নিজের লাভের দিকে আমার চেয়ে বেশি অজ্ঞ আর কে এবং খাল জিনিসের অংশীদারিতে আমার চেয়ে বেশি অসতর্ক কে? আত্ম-সংস্কারে আমার চেয়ে বেশি বিমুখ কে, যখন আমার বরাদ্দকৃত রিযিক ঐ সমস্ত পাপ কাজে ব্যয় করেছি যেগুলো আপনি করতে নিষেধ করেছেন?আর ভুল কাজে আমার চেয়ে অধিক কে নিয়োজিত আছে এবং পাপের কাজে আমার চেয়ে কে অধিক অগ্রসর, যখন আমি আপনার আহবান এবং শয়তানের আহবানের মাঝে থাকি আমি শয়তানের আহবানকেই অনুসরণ করি এমনকি যদিও আমি অন্ধ নই এবং তার (শয়তানের) বিষয়ে পুরো জ্ঞান আমার আছে, তার ক্ষেত্রে আমার স্মৃতির কোনো ভুল ব্যতিরেকেই এবং একই সাথে জানি যে আপনার আহবান জান্নাতের দিকে চালিত করে এবং তার আহবান জাহান্নামের দিকে চালিত করে?আপনি পবিত্র!এটা কত আশ্চর্যজনক যে আমি আমার আত্মার বিরুদ্ধে সাক্ষী বয়ে বেড়াই এবং এটা আমার একটি গোপন কাজ হিসেবে গণ্য করি।আরও আশ্চর্যজনক হল আপনার ক্ষমা আমাকে ত্যাগ করে জাহান্নামে ফেলে দিচ্ছে।আর এটা এ জন্যে নয় যে, আমি আপনার কাছ থেকে কোনো অনুগ্রহের অধিকারী হয়েছি, কিন্তু তাহলো আপনার করুণাময় বিলম্ব এবং ভালবাসসাময় দয়ার কারণে যাতে আমি আপনার গোসসা থেকে রেহাই পেতে পারি, আপনাকে অমান্য করার কারণে এবং জঘন্যতম পাপের জন্যই তা (আল্লাহর গোসসা) প্রকাশ পায়। এবং এ কারণে যে আপনার শাস্তির চেয়ে আপনার ক্ষমাই অধিক প্রযোজ্য।হে আমার আল্লাহ্! উপবস্তু আমি পাপ করতে মুক্তহস্ত, লেন-দেন দুর্নীতিগ্রস্ত, দূর্বলতার জন্য কাজ করতে অপারগ, দোষের কাজ করতে তৎপর এবয় আপনার কাজ করার ক্ষেত্রে খুবই দূর্বল, আপনার সতর্কতা এবং হুমকীর কারণে আমার দোষ আপনার কাছে প্রকাশ করতে অথবা ভুলগুলো স্বরণ করতে আমি খুব কমই চেষ্টা করি।আর বিশেষত আপনার দয়ার প্রত্যাশার পথে যেখানে পাপীদের উন্নতি বিদ্যমান রয়েছে এবং আপনার ক্ষমার প্রত্যাশা করে যেখানে অপরাধীদের মুক্তি রয়েছে, আমি এর দ্বারা আমার আত্মাকে ভৎর্সনা করি। হে প্রভু, দেখুন আমার এই গলা পাপের দ্বারা ভারাক্রান্ত।সেজন্য মিনতি করছি, হযরত মুহাম্মদ এবং তাঁর বংশধরদের উপর অনুগ্রহ করুন এবং আপনার কুদরতে এটা হালকা করে দিন।হে প্রভু, আমার চোখের পাতার লোমগুলো পড়ে যাওয়ার পূর্ব পর্যন্ত যদি কাঁদতে হত (আপনার কাছে), আমার স্বর শুদ্ধ হওয়ার পূর্ব পর্যন্ত যদি বিলাপ করতে হত, আমার প ফুলে যাওয়া পর্যন্ত যদি আপনার সেবায় দাঁড়িয়ে থাকতে হত, আমার মেরুদণ্ড উদ্ধত হওয়ার পূর্ব পর্যন্ত যদি আপনার সামনে অবনত হয়ে থাকতে হত, আমার চক্ষুগোলকগুলো তাদের কোটর থেকে বের হয়ে আসার পূর্ব পর্যন্ত যদি আমার মাথা জমিনে অবনত করে রাখতে হত, আমার জীবনভর যদি মাটির ময়লা খেতে হত, জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত যদি ছাইয়েরর পানি পান করতে হত এবং আমার কণ্ঠ অকেজো হয়ে যাওয়ার পূর্ব পর্যন্ত যদি আপনার জিকির করতে হত এবং তারপর কখনও আমার দৃষ্টি আকাশের পানে উঠাতে না পারতাম, আপনার সামনে লজ্জার কারণে, আমি তখন সকল পাপের মধ্যে একটি পাপও অবশিষ্ট থাকুক এ ইচ্ছা করতাম না।আর আমি যখন আপনার ক্ষমা চাইতাম যদি আপনি ক্ষমা করতেন এবং আমাকে গোনাহ্ মাফ করতেন যখন আমি মাফ চাইতাম। বিশেষত এটা আমার মেধার গুণে নয়, অথবা আপনার কাছ থেকে আমার প্রাপ্য নয়। আপনাকে অমান্য করার প্রথম বস্তুতেই ছিল জাহান্নামের আগুন। তাই আপনি যদি আমাকে শাসন করেন, এটা আপনার অবিচার নয়।আমার প্রভু, যেহেতু আপনি আমার পাপ ঢেকে দিয়েছেন, আপনি আমাকে অনুগ্রহ থেকে বঞ্চিত কোরেন না। আপনি অনুগ্রহ পূর্বক আমার প্রতি ধৈর্য ধারণ করেছেন, আমাকে শাস্তি দিতে তৎপর হননি। আপনার অনুগ্রহপূর্বক আমার সঙ্গে ছিলেন এবং আপনার অনুগ্রহপূর্বক উঠিয়ে নেননি, আমা হতে আপনার সাহায্যকে পৃথক করেন নি। সেজন্য, আমার মুনাজাতের দীর্ঘতা, আমার ভিক্ষার ইচ্ছা এবং আমার অবস্থার উপর করুণা প্রদর্শন করুন। হে প্রভু, হযরত মুহাম্মদ এবং তাঁর বংশধরদের উপর অনুগ্রহ করুন।।পাপ হতে আমাকে হেফাজত করুন।আমার মধ্যে গুণের সমাবেশ করিয়ে দিন।আমার জন্য বিরাট নেয়ামত বরাদ্দ করুন।অনুতাপের দ্বারা আমাকে বিশুদ্ধ করুন।সরলতার দ্বারা আমাকে সাহায্য করুন।শান্তিপূর্ণভাবে আমাকে সংশোধন করুন।আমাকে মুক্তির স্বাদ পাইয়ে দিন। আমাকে আপনার ক্ষমাতে মুক্ত মানুষ এবং আপনার দয়ায় উদ্ধার পাওয়া (পাপ হতে) মানুষ করে দিন। আপনার গোসসা থেকে আমাকে বাঁচিয়ে দিন। সেভাবে, পরবর্তীতে আমি যা ধারণা করতে পারছি তার সাথে এ দুনিয়ায় আমাকে সুসংবাদ দিয়ে দিন। আমি যেন অনুধাবন করতে পারি আমাকে এর একটি নির্দশন দেখিয়ে দিন। বিশেষত, আপনার শক্তিতে এটা কঠিন নং এবং আপনার ক্ষমতার কাছে কঠিন নয়।বিশেষত, সব কিছুর উপর আপনার ক্ষমতা বিরাজমান।

Ref: হযরত ইমাম জয়নাল আবেদীন আল ছহীফাহ্ আল সাজ্জাদীয়াহ্
অনুবাদ মুহাম্মদ মাঈনউদ্দিন
অন্যধারা, ৩৮/২-ক বাংলাবাজার (৫ম তলা) ঢাকা-১১০০
প্রকাশকাল : সেপ্টেম্বর ২০০৮
বাংলা অনুবাদ: প্রকাশক ২০০৮