দোয়া ১ মহান আল্লাহর প্রশংসা এবং মহিমা প্রকাশ

3 weeks ago najafi 0

التَّحْمِيدُ لِلَّهِ عَزَّ وَ جَلَّ
In
Praise of God
1
Praise belongs to God,
أَلْحَمْدُ للهِ
1
2
the First, without a first before Him,
الاوَّلِ بِلا أَوَّل كَانَ قَبْلَهُ،
2
3
the Last, without a last behind Him.
وَ الاخِر بِلاَ آخِر يَكُونُ بَعْدَهُ
3
4
Beholders’ eyes fall short of seeing Him,
،الَّذِي قَصُرَتْ عَنْ رُؤْيَتِهِ أَبْصَارُ
النَّاظِرِينَ
4
5
describers’ imaginations are not able to depict Him.
وَ عَجَزَتْ عَنْ نَعْتِهِ أَوهامُ اَلْوَاصِفِينَ
5
6
He originated the creatures through His power with
an origination,
ابْتَدَعَ بِقُدْرَتِهِ الْخَلْقَ اَبتِدَاعَاً،
6
7
He devised them in accordance with His will with a
devising.
وَاخْتَرَعَهُمْ عَلَى مَشِيَّتِهِ اخترَاعاً،
7
8
Then He made them walk on the path of His desire,
ثُمَّ سَلَكَ بِهِمْ طَرِيقَ إرَادَتِهِ،
8
9
He sent them out on the way of His love.
وَبَعَثَهُمْ فِي سَبِيلِ مَحَبَّتِهِ
9
10
They cannot keep back from that to which He has sent
them forward,
لايَمْلِكُونَ تَأخِيراً عَمَا قَدَّمَهُمْ إليْهِ
10
11
nor can they go forward to that from which He has
kept them back.
وَلا يَسْتَطِيعُونَ تَقَدُّماً إلَى مَا أَخَّرَهُمْ
عَنْهُ،
11
12
He assigned from His provision to each of their
spirits
وَ جَعَلَ لِكُلِّ رُوْح مِنْهُمْ
12
13
a nourishment known and apportioned.
قُوتَاً مَعْلُوماً مَقْسُوماً مِنْ رِزْقِهِ
13
14
No decreaser decreases those whom He increases,
لاَ يَنْقُصُ مَنْ زادَهُ نَاقِصٌ،
14
15
no increaser increases those of them whom He
decreases.
وَلاَ يَزِيدُ مَنْ نَقَصَ منْهُمْ زَائِدٌ
15
16
Then for each spirit He strikes a fixed term in
life,
ثُمَّ ضَرَبَ لَهُ فِي الْحَيَاةِ أَجَلاً مَوْقُوتاً،
16
17
for each He sets up a determined end;
وَ نَصَبَ لَهُ أَمَداً مَحْدُوداً،
17
18
he walks toward it through the days of his span,
يَتَخَطَّأُ إلَيهِ بِأَيَّامِ عُمُرِهِ،
18
19
he overtakes it through the years of his time.
وَيَرْهَقُهُ بِأَعْوَامِ دَهْرِهِ،
19
20
Then, when he takes his final step
حَتَّى إذَا بَلَغَ أَقْصَى أَثَرِهِ،
20
21
and embraces the reckoning of his span,
وَ اسْتَوْعَبَ حِسابَ عُمُرِهِ،
21
22
God seizes him to the abundant reward
قَبَضهُ إلَى ما نَدَبَهُ إلَيْهِ
22
23
or the feared punishment to which He has called him,
مِنْ مَوْفُورِ ثَوَابِهِ أَوْ مَحْذُورِ عِقَابِهِ،
23
24
“That He may repay those who do evil for what they
have done
لِيَجْزِيَ الَّذِينَ أَساءُوا بِمَا عَمِلُوا
24
25
and repay those who do good with goodness” (53:31),
وَ يَجْزِىَ الَّذِينَ أَحْسَنُوا بِالْحُسْنَى
25
26
as justice from Him (holy are His names,
عَدْلاً مِنْهُ تَقَدَّسَتْ أَسْمَآؤُهُ،
26
27
and manifest His boons).
وَتَظَاهَرَتْ ألاؤُهُ،
27
28
“He shall not be questioned as to what He does, but
they shall be questioned” (21:23).
لاَ يُسْأَلُ عَمَّا يَفْعَلُ وَهُمْ يُسْأَلُونَ
28
29
Praise belongs to God, for, had He withheld from His
servants the knowledge
وَالْحَمْدُ للهِ الَّذِي لَوْ حَبَسَ عَنْ عِبَادِهِ
مَعْرِفَةَ
29
30
to praise Him for the uninterrupted kindnesses with
which He has tried them
حَمْدِهِ عَلَى مَا أَبْلاَهُمْ مِنْ مِنَنِهِ
الْمُتَتَابِعَةِ
30
31
and the manifest favours which He has lavished upon
them,
وَأَسْبَغَ عَلَيْهِمْ رمِنْ نِعَمِهِ الْمُتَظَاهِرَة
31
32
they would have moved about in His kindnesses
without praising Him,
لَتَصرَّفُوا فِي مِنَنِهِ فَلَمْ يَحْمَدُوهُ
32
33
and spread themselves out in His provision without
thanking Him.
وَتَوَسَّعُوا فِي رِزْقِهِ فَلَمْ يَشْكُرُوهُ،
33
34
Had such been the case, they would have left the
bounds of humanity
وَلَوْ كَانُوا كَذلِكَ لَخَرَجُوا مِنْ حُدُودِ
الانْسَانِيَّةِ
34
35
for that of beastliness
إلَى حَدِّ الْبَهِيمِيَّةِ،
35
36
and become as He has described in the firm text of
His Book:
:فَكَانُوا كَمَا وَصَفَ فِي مُحْكَم كِتَابِهِ
36
37
“They are but as the cattle—nay, but they are
further astray from the way”! (25:46)
( إنْ هُمْ إلا كَالانْعَامِ بَلْ هُمْ أَضَلُّ
سَبِيلا )
37
38
Praise belongs to God, for the true knowledge of
Himself He has given to us,
وَالْحَمْدُ لله عَلَى مَا عَرَّفَنا من نفسه
38
39
the thanksgiving He has inspired us to offer Him,
وَأَلْهَمَنَا مِنْ شُكْرِهِ
39
40
the doors to knowing His Lordship He has opened for
us,
وَفَتَحَ لَنَا من أبوَابِ الْعِلْمِ بِرُبُوبِيّته
40
41
the sincerity towards Him in professing His Unity to
which He has led us,
وَدَلَّنَا عَلَيْهِ مِنَ الاِخْلاَصِ لَهُ فِي
تَوْحِيدِهِ
41
42
and the deviation and doubt in His Command from
which He has turned us aside;
وَجَنَّبَنا مِنَ الالْحَادِ وَالشَّكِّ فِي أَمْرِهِ،
42
43
a praise through which we may be given long life
among those of His creatures who praise Him,
حَمْداً نُعَمَّرُ بِهِ فِيمَنْ حَمِدَهُ مِنْ
خَلْقِهِ
43
44
and overtake those who have gone ahead toward His
good pleasure and pardon;
وَنَسْبِقُ بِـهِ مَنْ سَبَقَ إلَى رِضَاهُ وَعَفْوِهِ
44
45
a praise through which He will illuminate for us the
shadows of the interworld,
حَمْداً يُضِيءُ لَنَا بِهِ ظُلُمَاتِ الْبَرْزَخِ
45
46
ease for us the path of the Resurrection,
وَيُسَهِّلُ عَلَيْنَا بِهِ سَبِيلَ الْمَبْعَثِ
46
47
and raise up our stations at the standing places of
the Witnesses
وَيُشَرِّفُ بِهِ مَنَازِلَنَا عِنْدَ مَوَاقِفِ
الاشْهَادِ
47
48
“on the day when every soul will be repaid for what
it has earned – they shall not be wronged” (45:21);
يَوْمَ تُجْزَى كُلُّ نَفْس بِمَا كَسَبَتْ وَهُمْ لا
يُظْلَمُونَ
48
49
“the day a master shall avail nothing a client, and
they shall not be helped” (44:41);
(يَوْمَ لاَ يُغْنِي مَوْلىً عَنْ مَوْلىً شَيْئاً
وَلاَ هُمْ يُنْصَرُونَ)
49
50
a praise which will rise up from us to the highest
of the ‘Illiyun
حَمْداً يَرْتَفِعُ مِنَّا إلَى أَعْلَى عِلِّيِّينَ
50
51
“in a book inscribed, witnessed by those brought
nigh” (83:20-21),
فِي كِتَاب مَرْقُوم يَشْهَدُهُ الْمُقَرَّبُونَ،
51
52
a praise whereby our eyes may be at rest when sight
is dazzled,
حَمْداً تَقَرُّ بِهِ عُيُونُنَا إذَا بَرِقَت
الابْصَارُ
52
53
our faces whitened when skins are blackened,
وَتَبْيَضُّ بِهِ وُجُوهُنَا إذَا اسْوَدَّتِ
الابْشَارُ،
53
54
a praise through which we may be released from God’s
painful Fire
حَمْداً نُعْتَقُ بِهِ مِنْ أَلِيمِ نار الله
54
55
and enter God’s generous neighbourhood,
الى كَرِيمِ جِوَارِ اللهِ
55
56
a praise by which we may jostle the angels brought
nigh
حَمْداً نُزَاحِمُ بِهِ مَلاَئِكَتَهُ الْمُقَرَّبِينَ
56
57
and join the prophets, the envoys,
وَنُضَامُّ بِـهِ أَنْبِيآءَهُ الْمُـرْسَلِيْنَ
57
58
in a House of Permanence that does not remove,
فِي دَارِ الْمُقَامَةِ الَّتِي لا تَزُولُ
58
59
the Place of His Generosity that does not change.
وَمَحَلِّ كَرَامَتِهِ الَّتِي لاَ تَحُولُ
59
60
Praise belongs to God, who chose for us the good
qualities of creation,
وَالْحَمْدُ للهِ الَّذِي اخْتَارَ لَنَا مَحَاسِنَ
الْخَلْقِ
60
61
granted us the agreeable things of provision,
وَأَجرى عَلَيْنَا طَيِّبَاتِ الرِّزْقِ
61
62
and appointed for us excellence through domination
over all creation;
وَجَعَلَ لَنَا الفَضِيلَةَ بِالْمَلَكَةِ عَلَى
جَمِيعِ الْخَلْقِ
62
63
every one of His creatures submits to us through His
power
فَكُلُّ خَلِيقَتِهِ مُنْقَادَةٌ لَنَا بِقُدْرَتِهِ،
63
64
and comes to obey us through His might.
وَصَآئِرَةٌ إلَى طَاعَتِنَا بِعِزَّتِهِ
64
65
Praise belongs to God, who locked for us the gate of
need except toward Him.
وَالْحَمْدُ لله الَّذِي أَغْلَقَ عَنَّا بَابَ
الْحَّاجَةِ إلاّ إلَيْهِ
65
66
So how can we praise Him? When can we thank Him?
Indeed, when?
فَكَيْفَ نُطِيقُ حَمْدَهُ أَمْ مَتَى نُؤَدِّي
شُكْرَهُ؟ لا، مَتى؟
66
67
Praise belongs to God, who placed within us the
organs of expansion,
وَالْحَمْدُ للهِ الَّذِي رَكَّبَ فِينَا آلاَتِ
الْبَسْطِ
67
68
assigned for us the agents of contraction,
وَجَعَلَ لَنَا أدَوَاتِ الْقَبْضِ،
68
69
gave us to enjoy the spirits of life,
وَمَتَّعَنا بِاَرْواحِ الْحَياةِ
69
70
fixed within us the limbs of works,
وَأثْبَتَ فِينَا جَوَارِحَالاعْمَال
70
71
nourished us with the agreeable things of provision,
وَغَذَّانَا بِطَيِّبَاتِ الرِّزْقِ ،
71
72
freed us from need through His bounty,
وَأغْنانَا بِفَضْلِهِ
72
73
and gave us possessions through His kindness.
وَأقْنانَا بِمَنِّهِ
73
74
Then He commanded us that He might test our
obedience
ثُمّ أَمَرَنَا لِيَخْتَبِرَطاعَتَنَا،
74
75
and prohibited us that He might try our
thanksgiving. So we turned against the path of His
commandments
وَنَهَانَا لِيَبْتَلِيَ شُكْرَنَا فَخَالَفْنَا عَنْ
طَرِيْقِ أمْرِهِ
75
76
and mounted the backs of His warnings.
وَرَكِبْنا مُتُونَ زَجْرهِ ِ
76
77
Yet He hurried us not to His punishment,nor hastened
us on to His vengeance, ,
فَلَم يَبْتَدِرْنابِعُقُوبَتِه وَلَمْ يُعَاجِلْنَا
بِنِقْمَتِهِ
77
78
No, He went slowly with us through His mercy, in
generosity, and awaited our return through His
clemency, in mildness.
بَلْ تَانَّانا بِرَحْمَتِهِ تَكَرُّماً، وَانْتَظَرَ
مُراجَعَتَنَا بِرَأفَتِهِ حِلْماً.
78
79
Praise belongs to God, who showed us the way to
repentance,
وَالْحَمْدُ للهِ الَّذِي دَلَّنَاعَلَى التَّوْبَةِ
79
80
which we would not have won save through His bounty.
الَّتِي لَمْ نُفِدْهَا إلاّ مِنْ فَضْلِهِ،
80
81
Had we nothing to count as His bounty
فَلَوْ لَمْ نَعْتَدِدْ مِنْ فَضْلِهِ
81
82
but this, His trial of us would have been good,
إلاّ بِهَالَقَدْ حَسُنَ بَلاؤُهُ عِنْدَنَا،
82
83
His beneficence toward us great,
وَ جَلَّ إحْسَانُهُ إلَيْنَا،
83
84
His bounty upon us immense.
وَ جَسُمَ فَضْلُهُ عَلَيْنَا
84
85
For such was not His wont in repentance
فَمَا هكذا كَانَتْ سُنَّتُهُ فِي التَّوْبَةِ
85
86
with those who went before us.
لِمَنْ كَانَ قَبْلَنَا
86
87
He has lifted up from us
لَقَدْ وَضَعَ عَنَّا
87
88
“what we have not the strength to bear”(2:286) ,
مَا لا طَاقَةَ لَنَا بِهِ،
88
89
charged us only to our capacity,
وَلَمْ يُكَلِّفْنَا إلاّ وُسْعاً،
89
90
imposed upon us nothing but ease,
وَ لَمْ يُجَشِّمْنَا إلاّ يُسْراً
90
91
and left none of us with an argument or excuse.
وَلَمْ يَدَعْ لاَحَـد مِنَّا حُجَّةً وَلاَ عُذْراً
91
92
So the perisher among us is he who perishes in spite
of Him
فَالْهَالِكُ مِنَّا مَنْ هَلَكَ عَلَيْهِ
92
93
and the felicitous among us he who beseeches Him.
وَ السَّعِيدُ مِنَّا مَنْرَغِبَ إلَيْهِ
93
94
And praise belongs to God with all the praises of
وَ الْحَمْد للهِ بِكُلِّ مَا حَمِدَهُ بِهِ
94
95
His angels closest to Him,
أدْنَى مَلائِكَتِهِ إلَيْهِ
95
96
His creatures most noble in His eyes,
وَ أَكْرَمُ خَلِيقَتِهِ عَلَيْهِ
96
97
and His praisers most pleasing to Him;
وَأرْضَىحَامِدِيْهِ لَدَيْهِ
97
98
a praise that may surpass other praises
حَمْداً يَفْضُلُ سَآئِرَ الْحَمْدِ
98
99
as our Lord surpasses all His creatures.
كَفَضْلِ رَبِّنا عَلَى جَمِيعِ خَلْقِهِ
99
100
Then to Him belongs praise,
ثُمَّ لَهُ الْحَمْدُ
100
101
in place of His every favour upon us
مَكَانَ كُلِّ نِعْمَة لَهُ عَلَيْنَا
101
102
and upon all His servants, past and still remaining,
وَ عَلى جَمِيعِ عِبَادِهِ الْمَاضِينَ وَالْبَاقِينَ
102
103
to the number of all things His knowledge
encompasses,
عَدَدَ مَا أَحَاطَ بِهِ عِلْمُهُ مِنْ
جَمِيعِالاشْيَآءِ
103
104
and in place of each of His favours,
وَ مَكَانَ كُلِّ وَاحِدَة مِنْهَا عَدَدُهَا
104
105
their number doubling and redoubling always and
forever, to the Day of Resurrection;
أَضْعافَاً مُضَاعَفَةً أَبَداً سَرْمَداً إلَى يَوْمِ
الْقِيَامَةِ
105
106
a praise whose bound has no utmost end,
حَمْداً لاَ مُنْتَهَى لِحَدِّهِ
106
107
whose number has no reckoning,
وَ لا حِسَابَ لِعَدَدِهِ
107
108
whose limit cannot be reached,
وَ لاَ مَبْلَغَ لِغَايَتِهِ
108
109
whose period cannot be cut off;
وَ لا انْقِطَاعَ لاَمَدِهِ
109
110
a praise which will become a link to His obedience
and pardon,
حَمْدَاً يَكُونُ وُصْلَةً إلَى طَاعَتِهِ وَعَفْوِهِ
110
111
a tie to His good pleasure,
وَ سَبَباً إلَى رِضْوَانِهِ
111
112
a means to His forgiveness,
وَذَرِيعَةً إلَى مَغْفِرَتِهِ
112
113
a path to His Garden,
وَ طَرِيقاً إلَى جَنَّتِهِ
113
114
a protector against His vengeance,
وَخَفِيْراً مِنْ نَقِمَتِهِ
114
115
a security against His wrath,
وَ أَمْناً مِنْ غَضَبِهِ
115
116
an aid to obeying Him,
وَ ظَهِيْراً عَلَى طَاعَتِهِ
116
117
a barrier against disobeying Him,
وَ حَاجِزاً عَنْ مَعْصِيَتِهِ
117
118
a help in fulfilling His right and His duties;
وَعَوْناً عَلَى تَأدِيَةِ حَقِّهِ وَ وَظائِفِهِ
118
119
a praise that will make us felicitous among His
felicitous friends,
حَمْداً نَسْعَدُ بِهِ فِي السُّعَدَاءِ مِنْ
أَوْلِيَآئِهِ
119
120
and bring us into the ranks of those martyred by the
swords of His enemies.
وَنَصِيرُ بِهِ فِي نَظْمِ الشُّهَدَآءِ بِسُيُوفِ
أَعْدَائِهِ
120
121
He is a Friend, Praiseworthy!
إنَّهُ وَلِيٌّ حَمِيدٌ
121

পরম করুণাময় এবং অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি

একটি মুনাজাত যা দ্বারা তিনি (হযরত ইমাম জয়নাল আাবেদীন) তাঁর মিনতি শুরু করেছেন তিনি মহান আল্লাহর প্রশংসা এবং মহিমা প্রকাশ করে শুরু করেছেন।
সকল প্রশংসা আল্লাহর জস্য যিনি আদি। যার পূর্বে কেউ ছিলনা। এবং তিনি আদান্ত, যার পরে আর কেউ থাকবে না।
ঐ সমস্ত চোখ তাঁকে পুরোপুরি চাক্ষুষ দেখতে পারে না, যারা তাকে দেখেছেন। তিনি ঐ সমস্ত লোকের কল্পনার অতীত, যার তাঁর প্রশংসা করে।
তঁর কুদরতের দ্বারা তিনি প্রত্যেক সৃষ্টিকে সৃষ্টি করেছেন এবং তিনি তাঁর এরাদা অনুযায়ী তাদের কাঠামো গঠন করেছেন।
তারপর তিনি তাদেরকে তাঁর নির্দিষ্ট পথে পরিচালনা করান এবং তাঁর পছন্দনীয় রাস্তায় তাদেরকে পতিস্থাপনকরেছেন।
তাদের কোনো সামর্থ্য নেই ওখানে অপেক্ষা করার যেখানে আল্লাহ্ তাদেরকে জলদি করিয়ে দেন এবং তাদের ওখানে জলদি করার সামর্থ্য নেই যেখানে আল্লাহ্ অপেক্ষা করিয়ে দেন।
তিনি প্রত্যেক রুহ-এর জন্য নির্দিষ্ট পরিমাণ জীবিকা নির্দিষ্ট করে রেখেছেন। তিনি সবার জন্য রিযিক বন্টন করে রেখেছেন। তিনি যা বৃদ্ধি করেছেন কেউ তা হ্রাস করতে পারে না এবং তিনি যা হ্রাস করেছেন
কেউ তা বৃদ্ধি করতে পারে না। তিনি প্রত্যেকের জন্য জীবনের একটি নির্দিষ্ট সময় লিপিবদ্ধ করেছেনএবং প্রত্যেকে দুনিয়াতে এসে যে দিনগুলো অতিবাহিত করবে তাও তা নির্দিষ্ট করে দিয়েছেন। এবং
প্রত্যেকে তার জীবনের বছরগুলোর মধ্যে ঐ দিনগুলোতে উপনীত হবেন। আর যখন কেউ একজন তার জীবেনের অনুমোদিত সময় পূর্ণ করে শেষ সীমায় পৌঁছায়, মহান প্রতিপালক তখন তাকে তার
আমন্ত্রিত বস্তু হিসেবে উঠিয়ে নিয়ে যায়। তিনি তাঁর বিচার অনুযায়ী যেমন ইচ্ছে তাকে প্রচুর পুনষ্কার দান করেন অথবা তাকে ভয়ানক শাস্তি দেন। পাপীদেরকে তাদের কাজের প্রতিদান স্বরূপ শাস্তি দেন এবং
নেককারদের তিনি অফুরন্ত প্রতিদান দান করেন। তাঁর নামগুলো পবিত্র এবং আবৃত্তশীল বস্তসমূহ তাঁর নেয়ামত। তিনি যা করেন তার জন্য জিজ্ঞাসিত হবেন না কিন্তু অন্যরা জিজ্ঞাসিত হবে। সকল প্রশংসা
আল্লাহর জন্য, কারণ তিনি তাঁর সৃষ্টির (প্রশংসা পাওয়ার অধিকার রাখেন) প্রশংসার জন্য মোহ্তাজ নন। তারা (অকৃতজ্ঞভাবে) তাঁর নেয়ামত ভোগ করে থাকে যা সব সময় তিনি প্রবাহমান রেখেছেন। তারা
হয়ত তার প্রতি চির কৃতজ্ঞ না থেকেই তাঁর নেয়ামতের উন্নয়ন সাধন করে থাকে।
এবং তারা যদি এমন করে থাকে তাহলে তারা মানবতার সীমানার বাইরে চলে গেছে এবং পশুদের নিকটবর্তী পৌঁছেছে। তাদেরকে ঐ কথা বিবেচনা করতে যা আল্লাহ তা’য়ালা তার চমৎকার কিতাবে বয়ান
করেছেন, “তারা জানোয়ার অথবা তার চেয়ে নিম্ন পর্যায়ের বৈ আর কি?”
আল্লাহ তাঁর কৃতজ্ঞ পাশে আবদ্ধ হওয়ার জন্য তাঁর নিজের সমন্ধে আমাদের যা শিক্ষা দিয়েছেন এজন্য তাঁর প্রশংসা করছি। তাঁর স্বর্গীয় জ্ঞানের দ্বার আমাদের জন্য খুলেছেন। তিনি আমাদের তাঁর
একত্ববাদের পবিত্র বিশ্বাসের উপর আমাদের পরিচালনা করেছেন এবং আমাদেরকে এর বিরোধিতা করা থেকে হেয়াজত করেছেন, এমনকি তিনি তাঁর আদেশ পালনে সন্দেহ থেকেও আমাদের বিরত
রেখেছেন।
আমরা তাঁর প্রশংসা করছি যদ্বারা আমরা তাঁর ঐ সকল সৃষ্টির মধ্যে গণ্য হতে পারি যার তাঁর প্রশংসা করে। যা দ্বারা কবুলিয়াত এবং ক্ষমা খোঁজ করে। তাঁর প্রশংসা করছি এ জন্য যাকে তিনি আমাদের
মৃত্যু এবং বিচার দিবসের মধ্যবর্তী সময়কালে আলোকিত করে অন্ধকার বিদুরিত করেন এবং আমাদের পুনরুখান সহজ করে দেন। যা দ্বারা সাক্ষী উপস্থিত করার সময় আমরা আমাদের অবস্থান উন্নীত
করতে পারি, ঐ দিন যখন প্রত্যেক রহ্কে তাদের কাজ অনুযায়ী প্রতিদান দেয়া হবে এবং তাদের বেলায় কোনো ভুল হবে না। ঐ দিন যখন কোনো বস্ধুই তার বন্ধুকে সাহায্য করবে না, আর কেউ তার
বন্ধুর কাছ থেকে সাহায্যও প্রাপ্ত হবে না। প্রতিপালকের প্রশংসা যা আমাদের থেকে উদ্গত হয়ে বেহেশতের উচ্চ স্তরে পৌঁছে যায়, যা লিখিত কিতাবে (কোরআনে) বিদ্যমান। এমন এক সাক্ষীস্বরূপ যার
সাহায্যে আল্লাহর কাছে পৌঁছা যায়। আল্লাহর প্রশংসা এজন্য যে যা দ্বারা আমাদের চোখ পরিতৃপ্তি লাভ করবে যখন আমাদের চোখ দিয়ে অশ্রু বইবে, আর যা দ্বারা আমাদের মুখমন্ডল উজ্জ্বল হবে যখন
অন্যদের মুখমন্ডল কালো হবে। তাঁর প্রশংসা এজন্য যাতে আমরা আল্লাহ প্রদত্ত আগুন থেকে মুক্তি লাভ করে তাঁর অনুকূল পরিবেশে যেতে পারি। যা দ্বারা আমরা করুণা লাভের জন্য ফেরেশতাদেরকে তঁর
কাছে পাঠাতে পারি এবং যা দ্বারা আমরা তাঁর দূতের (নবীজীর) সাথে মিলিত হয়ে স্থায়ী বাসস্থানে বাস করতে পারি, যা আর কেড়ে নেয়া হবে না এবং তার সাথে সম্মানীয় এক স্থানে, যা আর পরিবর্তন হবে
না।
আল্লাহর জন্য প্রশংসা যিনি আমাদের জন্য সৃষ্টির সৌন্দর্য পছন্দ করেছেন। আমাদের জন্য পুষ্টিকর খাঁটি উপাদান তৈরী করেছেন এবং আমাদেরকে সকল সৃষ্টির চেয়ে শ্রেষ্ঠত্ব দান করেছেন। তাঁর ক্ষমতার
কারণে যাতে তারা আমাদের অনুগত হয় এবং তাঁর কর্তৃত্বের জন্য তারা আমাদের খেদমতে নিযুক্ত।
আল্লাহর জন্যই প্রশংসা যিনি ভিক্ষার সকল দরজা বন্ধ করে দিয়েছেন, শুধু তাঁর দরজা ব্যতিরেকে।
এখন, কারও পক্ষে তাঁর যথাযখ প্রশংসা করা কিভাবে সম্ভব?
আমরা কিভাবে তাঁকে যথাযথভাবে ধন্যবাদ জানাতে পারি? আমরা তা করতে পারব না।
প্রশংসা আল্লাহর জন্য যিনি সম্প্রসারণের অঙ্গসমূহ এবং সংকোচনের অঙ্গসমূহ আমাদেরকে দান করেছেন। আমাদেরকে জীবনের প্রয়োজনীয় উপকরণ দান করেছেন। নড়াচড়া করার জন্য আমাদের মধ্যে
অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ স্থাপন করেছেন। আমাদেরকে স্বাস্থ্য-সম্মত উপকরণ দ্বারা আহার করান। তাঁর অনুগ্রহ দ্বারা তিনি আমাদেরকে স্বাধীন করেছেন এবং আমাদেরকে ধন-সম্পদ দিয়েছেন তাঁর দয়ার দ্বারা। তিনি
আমাদেরকে নির্দিষ্ট কিছু কাজ করার জন্য বারণ করেছেন যাতে তিনি আমাদের আনুগত্য পরখ করতে পারেন এবং নির্দিষ্ট কিছু কাজ করতে বলেছেন যাতে তিনি াামাদের কৃতজ্ঞতা পরখ করতে পারেন।

কিস্তু আমরা তাঁর নির্দেশিত রাস্তা থেকে বিচ্যুত এবং এরকম কাজ যা আমাদের প্রতি তাঁকে ক্রোধাম্বিত করে। কিন্তু তিনি আমাদেরকে শাস্তি দেয়ার জন্য অধীর হন না, আর প্রতিশোধ নেয়ার জন্য ব্যস্তও হন
না। উপবস্তু তিনি তাঁর দয়ার দ্বারা আমাদের শাস্তি দেয়া থেকে বিরত থাকেন এবং তাঁ অনুগ্রহশীল ক্ষমার দ্বারা তাঁর আনুগত্যে আমাদের ফিরে আসার জন্য অপেক্ষা করেন।
আর প্রশংসা আল্লাহর জন্য যিনি আমাদেরকে অনুতাপের দিকে প্রত্যাবর্তন করিয়েছেন। যা আমরা তাঁর অনুগ্রহ বৈ কখনও অর্জন করতে পারতাম না। যদি আমরা তাঁর আনকূল্য ধর্তব্য জ্ঞান না করতাম,
বিশেষ করে এটি আমাদের প্রতি তাঁর আনুকূল্য তারপরও প্রশংসার দাবি রাখে এবং আমাদের প্রতি তার গুরুত্ব অতুলণীয়। এ সমস্ত ক্ষেত্রে তিনি ঐ সমস্ত লোকদেরকে অনুতাপের সুযোগ দেন নি যারা
আমাদের পূর্বে এসেছিল (পূর্ববর্তী উম্মতগণ)
চেয়ে দেখ তিনে আমাদের উপর থেকে বোঝা অপসারণ করেছেন, যা বহন করার ক্ষমতা আমাদের নেই। আমাদের সামর্থ্যরে বাইরে তিনি আমাদের জন্য কোনো দায়িত্ব বর্তিয়ে দেন নি এবং তিনি সহজ
ব্যতিরেকে আমাদেরকে কোনো আদেশ করেন নি। এভাবে তিনি আমাদের মধ্যে কাউকেই কোনো কাঠিন্য দিয়ে পিছনে রাখেন নি অথবা অবাধ্য হওয়ার সুযোগ রাখেন নি।
তাই আমাদের মধ্য থেকে তারা ধবংস হোক যারা তাঁর আদেশকে অগ্রাহ্য করবে। ওরা সুখী হবে যারা তাঁরা তাঁর কাছে প্রত্যাশা রাখে।
সমস্ত বন্দার সাথে আল্লাহর প্রশংসা করছি। যা দ্বারা ফেরেশতাদের কর্তৃক আল্লাহ প্রশংসিত হন। ঐ সকল সুষ্টি দ্বারা যারা তাঁর কাছে সম্মানিত এবং তাদের দ্বারা যারা তাঁর দ্বারা উত্তীর্ণ হয়েছে। এমন এক
প্রশংসা যার মধ্যে সকল প্রশংসা বিদ্যমান যেমন নাকি সমস্ত সৃষ্টির মহত্ত্ব বর্ণনা করা।
তারপর আল্লাহর প্রশংসা করছি আমাদের উপর এবং তাঁর সমস্ত বান্দাদের উপর দেয়া নেয়ামতের জন্য যারা আছে এবং অতীতে ছিল। আর মাখলুকের সংখ্যাটা যা তাঁর জ্ঞানে মজুদ রয়েছে।
আর প্রতিটি নেয়ামতের জন্য ঐ সংখ্যা বরাবর প্রশংসা এবং বহুগুণ বেশি প্রশংসা করছি। অনবরত এবং সীমাহীনভাবে পূনরুখানের পূর্ব পর্যন্ত। তাঁর প্রশংসার কোনো সীমা নেই, এবং প্রশংসার কোনো
হিসাব নেই। প্রশংসার ব্যাখ্যায় কোনো শেষ নেই এবং সময়ের কোনো সীমা নেই।
আমরা ঐ দয়ার জন্য প্রশংসা করছি যা আমাদের আমলের সাথে তাঁর সম্পর্ক স্থাপন করেছেন এবং আমাদের জন্য তাঁর ক্ষমা ঘোষণা করেছেন। যা হল তাঁকে পরিতৃপ্ত করার এক ধারণা; তাঁর ক্ষমার এক
যর্থার্থ উপায় তাঁর বেহেশতের পৌঁছার এক রাস্তা; তঁর শাসন থেকে আত্মরক্ষার উপায়; তাঁর রাগ হতে বাঁচার নিরাপত্তা; তাঁর খেদমত করার একটি সহযোগী; তাঁর প্রতি অকৃতজ্ঞ হওয়ার চেয়ে একটি
উপায়; এবং আমাদের পারিশ্রামিক পাওয়ার সহায়ক এবং তাঁর প্রতি অনুগত থাকা।
ঐ দয়ালু আল্লাহর প্রশংসা করছি যা দ্বারা আমরা তাঁর ঐ সমস্ত প্রিয় কল্যাণ প্রাপ্তদের মধ্যে হতে পারি এবং ঐ সমস্ত শহীদদের অন্তর্ভূক্ত হতে পারি যারা তাঁর শত্রুর তালোয়ারের নীচে জীবন বিলিয়ে
দিয়েছেন।
ভাল করে দেখে নাও যে, সেই আমাদের প্রভু। যিনি সবচেয়ে বেশি প্রশংসিত।

Ref: হযরত ইমাম জয়নাল আবেদীন আল ছহীফাহ্ আল সাজ্জাদীয়াহ্
অনুবাদ মুহাম্মদ মাঈনউদ্দিন
অন্যধারা, ৩৮/২-ক বাংলাবাজার (৫ম তলা) ঢাকা-১১০০
প্রকাশকাল : সেপ্টেম্বর ২০০৮
বাংলা অনুবাদ: প্রকাশক ২০০৮