1
O God, from whom nothing is concealed
يَا أَللهُ الَّذِي لاَ يَخْفَى عَلَيْهِ
1
2
in earth or heaven!
شَيْءٌ فِي الأَرْضِ وَلاَ فِي السَّمَآءِ،
2
3
How should what Thou hast created, my God, be
concealed from Thee?
وَكَيْفَ يَخْفى عَلَيْكَ يَا إلهِي مَا أَنْتَ
خَلَقْتَهُ؟
3
4
How shouldst Thou not number what Thou hast made?
وَكَيْفَ لاَ تُحْصِي مَا أَنْتَ صَنَعْتَهُ؟
4
5
How should what Thou governest be absent from Thee?
أَوْ كَيْفَ يَغِيبُ عَنْكَ مَا أَنْتَ تُدَبِّرُهُ؟
5
6
How should one who has no life except through Thy
provision have the ability to flee from Thee?
أَوْ كَيْفَ يَسْتَطِيعُ أَنْ يَهْرُبَ مِنْكَ مَنْ
لاَ حَياةَ لَهُ إلاَّ بِرِزْقِكَ؟
6
7
How should one who has no road except in Thy kingdom
escape from Thee?
أَوْ كَيْفَ يَنْجُو مِنْكَ مَنْ لاَ مَذْهَبَ لَهُ
فِي غَيْرِ مُلْكِكَ؟
7
8
Glory be to Thee! He among Thy creatures who fears
Thee most knows Thee best,
سُبْحَانَكَ! أَخْشى خَلْقِكَ لَكَ أَعْلَمُهُمْ بِكَ،
8
9
he among them most bent in humility is most active
in obeying Thee,
وَأَخْضَعُهُمْ لَكَ أَعْمَلُهُمْ بِطَاعَتِكَ،
9
10
and he among them whom Thou providest while he
worships another is most contemptible before Thee!
وَأَهْوَنُهُمْ عَلَيْكَ مَنْ أَنْتَ تَرْزُقُهُ وَهُوَ
يَعْبُدُ غَيْرَكَ،
10
11
Glory be to Thee! He who associates others with Thee
and denies Thy messengers diminishes not Thy
authority.
سُبْحَانَكَ! لاَ يُنْقِصُ سُلْطَانَكَ مَنْ أَشْرَكَ
بِكَ، وَكَذَّبَ رُسُلَكَ،
11
12
He who dislikes Thy decree cannot reject Thy
command.
وَلَيْسَ يَسْتَطِيعُ مَنْ كَرِهَ قَضَآءَكَ أَنْ
يَرُدَّ أَمْرَكَ،
12
13
He who denies Thy power keeps himself not away from
Thee.
وَلاَ يَمْتَنِعُ مِنْكَ مَنْ كَذَّبَ بِقُدْرَتِكَ،
13
14
He who worships other than Thee escapes Thee not.
وَلاَ يَفُوتُكَ مَنْ عَبَدَ غَيْرَكَ،
14
15
He who dislikes meeting Thee will not be given
endless life in this world.
وَلاَ يُعَمَّرُ فِي الدُّنْيَا مَنْ كَرِهَ
لِقَآءَكَ.
15
16
Glory be to Thee! How mighty is Thy station,
overpowering Thy authority,
سُبْحَانَكَ! مَا أَعْظَمَ شَأْنَكَ، وَأَقْهَرَ
سُلْطَانَكَ،
16
17
intense Thy strength, penetrating Thy command!
وَأَشَدَّ قُوَّتَكَ، وَأَنْفَذَ أَمْرَكَ!
17
18
Glory be to Thee! Thou hast decreed death for all
Thy creatures,
سُبْحَانَكَ! قَضَيْتَ عَلَى جَمِيعِ خَلْقِكَ
الْمَوْتَ:
18
19
both him who professes Thy Unity and him who
disbelieves in Thee;
مَنْ وَحَّدَكَ وَمَنْ كَفَرَ بِكَ،
19
20
each one will taste death,
وَكُلٌّ ذَائِقُ المَوْتِ،
20
21
each one will come home to Thee. Blessed art Thou
and high exalted!
وَكُلٌّ صَائِرٌ إلَيْكَ، فَتَبَارَكْتَ
وَتَعَالَيْتَ،
21
22
There is no god but Thou, Thou alone, who hast no
associate. I have faith in Thee,
لاَ إلهَ إلاَّ أَنْتَ، وَحْدَكَ لاَ شَرِيكَ لَكَ،
آمَنْتُ بِكَ،
22
23
I attest to Thy messengers, I accept Thy Book,
وَصَدَّقْتُ رُسُلَكَ وَقَبِلْتُ كِتَابَكَ،
23
24
I disbelieve in every object of worship other than
Thee,
وَكَفَرْتُ بِكُلِّ مَعْبُود غَيْرِكَ،
24
25
I am quit of anyone who worships another!
وَبَرِئْتُ مِمَّنْ عَبَدَ سِوَاكَ.
25
26
O God, I rise in the morning and enter the evening
making little of my good works,
أللَّهُمَّ إنِّي أُصْبحُ وَأُمْسِي مُسْتَقِلاًّ
لِعَمَلِي،
26
27
confessing my sins, admitting my offenses;
مُعْتَرِفاً بِذَنْبِي، مُقِرَّاً بِخَطَايَايَ،
27
28
I am abased because of my prodigality against
myself.
أَنَا بِإسْرَافِي عَلَى نَفْسِي ذَلِيلٌ،
28
29
My works have destroyed me, my caprice has ruined
me,
عَمَلِي أَهْلَكَنِي، وَهَوَايَ أَرْدَانِي،
29
30
my passions have deprived me.
وَشَهَوَاتِي حَرَمَتْنِي.
30
31
So I ask Thee, my Master, the asking of him whose
soul is diverted by his drawn out expectations,
فَأَسْأَلُكَ يَا مَوْلاَيَ سُؤالَ مَنْ نَفْسُهُ
لاَهِيَةٌ لِطُولِ أَمَلِهِ،
31
32
whose body is heedless because of the stillness of
his veins,
وَبَدَنُهُ غَافِلٌ لِسُكُونِ عُرُوقِهِ،
32
33
whose heart is entranced by the multitude of favours
done for him,
وَقَلْبُهُ مَفْتُونٌ بِكَثْرَةِ النِّعَمِ عَلَيْهِ،
33
34
whose reflection is little concerning that to which
he is coming home;
وَفِكْرُهُ قَلِيلٌ لِمَا هُوَ صَائِرٌ إلَيْهِ،
34
35
the asking of him whom false expectation has
overcome,
سُؤَالَ مَنْ قَدْ غَلَبَ عَلَيْهِ الاَمَلُ،
35
36
caprice has entranced, and this world has mastered,
وَفَتَنَهُ الْهَوى، وَاسْتَمْكَنَتْ مِنْهُ
الدُّنْيَا،
36
37
and over whom death has cast its shadow; the asking
of him who makes much of his sins
وَأَظَلَّهُ الاَجَلُ، سُؤَالَ مَنِ اسْتَكْثَرَ
ذُنُوبَهُ،
37
38
and confesses his offense; the asking of him who has
no Lord but Thou,
وَاعْتَرَفَ بِخَطِيئَتِهِ، سُؤَالَ مَنْ لاَ رَبَّ
لَهُ غَيْرُكَ،
38
39
no friend besides Thee, no one to deliver him from
Thee,
وَلاَ وَلِيَّ لَهُ دُونَكَ، وَلاَ مُنْقِذَ لَهُ
مِنْكَ،
39
40
and no asylum from Thee except in Thee.
وَلاَ مَلْجَأَ لَهُ مِنْكَ إلاَّ إلَيْكَ .
40
41
My God, I ask Thee by Thy right incumbent upon all
Thy creatures,
إلهِي أسْأَلُكَ بِحَقِّكَ الْـوَاجِبِ عَلَى جَمِيعِ
خَلْقِكَ،
41
42
by Thy mighty name with which Thou commanded Thy
messenger to glorify Thee,
وَبِاسْمِكَ الْعَظِيْمِ الَّذِي أَمَرْتَ رَسُولَكَ
أَنْ يُسَبِّحَكَ بِهِ،
42
43
and by the majesty of Thy generous face, which ages
not,
وَبِجَلاَلِ وَجْهِكَ الْكَرِيمِ الذِي لاَ يَبْلى
43
44
nor changes, nor alters, nor passes away,
وَلاَ يَتَغَيَّرُ، وَلاَ يَحُولُ وَلاَ يَفْنى،
44
45
that Thou blessest Muhammad and the Household of
Muhammad,
أَنْ تُصَلِّيَ عَلَى مُحَمَّد وَآلِ مُحَمَّد،
45
46
that Thou freest me from need for all things through
worshipping Thee,
وَأَنْ تُغْنِيَنِي عَنْ كُلِّ شَيْء بِعِبادَتِكَ،
46
47
that Thou distractest my soul from this world
through fear of Thee,
وَأَنْ تُسَلِّيَ نَفْسِيْ عَنِ الدُّنْيَا
بِمَخَافَتِكَ،
47
48
and that Thou turnest me back toward Thy abundant
generosity through Thy mercy!
وَأَنْ تُثْنِيَنِي بِالْكَثِيْرِ مِنْ كَرَامَتِكَ
بِرَحْمَتِكَ،
48
49
To Thee I flee, Thee I fear, from Thee I seek aid,
فَإلَيْكَ أَفِرُّ، و مِنْكَ أَخَافُ، وَبِكَ
أَسْتَغِيثُ،
49
50
in Thee I hope, Thee I supplicate, in Thee I seek
asylum,
وَإيَّاكَ أَرْجُو، وَلَكَ أَدْعُو، وَإلَيْكَ
أَلْجَأُ،
50
51
in Thee I trust, from Thee I ask help, in Thee I
have faith,
وَبِكَ أَثِقُ، وَإيَّاكَ أَسْتَعِينُ، وَبِكَ
أُؤمِنُ،
51
52
in Thee I have placed my confidence,
وَعَلَيْكَ أَتَوَكَّلُ،
52
53
and upon Thy munificence and Thy generosity I rely.
وَعَلَى جُودِكَ وَكَرَمِكَ أَتَّكِلُ.
53

 

পরম করুণাময় এবং অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি

আল্লাহ্র কাছে জরুরী বিষয়ের আবেদন করে তাঁর একটি মুনাজাত।
হে আল্লাহ কোনো কিছুই আপনার কাছে গোপন থাকে না, জমিনেরও না অথবা আসমানেরও না। হে আমার আল্লাহ্, আপনি যা সৃষ্টি করেছেন তা কিভাবে আপনার থেকে আড়ালে থাকতে পারি।
আপনি যা তৈয়ার করেছেন কিভব্ েআপনার কাছে তার হিসাব না থাকতে পারে।
আপনি যা নিয়ন্ত্রণ করেন তা কিভাবে আপনার কাছে গরহাজির থাকতে পারে?
যার নিজের কোনো জীবন নেই এবং আপনার নেয়ামত দ্বারা বেঁচে থাকে, কিভাবে সে পালাতে পারে? যার কোনো রাস্তা নেই এবং আপনার রাজত্বে বেঁচে থাকে, কিভাবে সে আপনার কাছ থেকে পালাতে পারে?
আপনার পবিত্রতা বর্ণনা করছি।
আপনার সৃষ্টিকুলের মধ্যে যে আপনাকে বেশি চিনে সে আপনাকে অধিক ভয় করে এবং তাদের মধ্যে সেই বেশি এবাদতকারী যে আপনার সবচেয়ে বেশি অনুগত। আপনার দৃষ্টিতে তাদের মধ্যে সবচেয়ে জঘন্য সে যাকে আপনি রিজিক দিয়েছেন আর সে আপনাকে ছাড়া অন্য কারো বন্দেগী করে।
আপনার পবিত্রতা বর্ণনা করছি। যে আপনাকে ছেড়ে অন্য কারো সাথে মিলিত হয় সে আপনার কর্তৃত্বেব কমতি করতে পারবে না। আর সে আপনার রাসুলকে মিথ্যা প্রতিপন্ন করে।
অথবা যে আপনার নিধানকে অপছন্দ করে সে আপনার বাণীর পাশে কিছু সংযোজন করতে পাবে না।
অথবা যে আপনার ক্ষমতাকে অস্বীকার করে সে আপনার কাছ থেকে পালাতে পারবে না।
অথবা যে তাঁকে (হযরত মুহাম্মদ) ছাড়া অন্য কাউকে সম্মান করে আপনাকে এড়িয়ে যেতে পারবে না।
আপনার পবিত্রতা বর্ণনা করছি! আপনার মর্যাদা কত বেশি। আপনার সার্বভৌমত্ব কত শক্তিশালী।
আপনার ক্ষমতা কত মজবুত। আপনার আদেশ কত ফলপ্রন্ড।
আপনার পবিত্রতা বর্ণনা করছি। আপনি সবার জন্য মৃত্যুর বিধান রেখেন, যে আপনার প্রতি ঈমান এনেছে তার জন্য এবং আপনাকে অস্বীকার করে তার জন্যও। প্রত্যেককেই মৃত্যুর স্বাদ ভোগ করতে হবে এবং আপনার কাছে ফিরে যেতে হবে। তাই আপনি মহিমাম্বিত। আপনি সম্মানিত। আপনি ব্যতীত আর কোনো মা’বুদ নেই। আপনি একক, আপনার কোনো শরীক নেই।
আমি আপনার উপর ঈমান এনেছি, বিশেষত, আপনার রাসুলের উপর, আপনার কিতাব গ্রহণ করেছি, আপনার পাশে অন্য বস্তুর এবাদত করাকে আমি অস্বীকার করেছি এবং তার কাছ থেকে নিজেকে সরিয়ে রেখেছি যে আপনি ব্যতীত অন্য কারো এবাদত করে।
হে প্রভু, আমার গুনাহ্ বিবেচনা করে আমার ভুল স্বীকার করেও আমার কাজ কর্মের জন্য সকালে জেগে উঠি এবং সারাদিন মেহনত করি।
আমার নিজের বিুদ্ধে চলার জন্য আমি লজ্জিত। আমার আমলসমূহ আমাকে ধ্বংস করে দিয়েছে। আমার অপকর্ম আমাকে অকার্য করে দিয়েছে। আমার যৌনবাসনা আমাকে ছিনতাই করেছে।
সেজন্য, আমি আপনার কাছে প্রার্থনা করছি, হে আমার প্রভু, তার মত অতি দূর প্রত্যাশায় পৌঁছাতে যার দিল ভোঁতা, তার ধমনীর নিস্তেজতার কারণে, যার দেহ অচেতন, তার উপর অনুগ্রহের প্রাচুর্যতার জন্য যার হৃদয় মোহরকৃত এবং সে যা করেছে তার সমন্ধে সে খুব সামান্যই চিন্তা করে।
তার মত আমি ভিক্ষা করছি যার কাছে আশা অতিক্রান্ত হয়ে গিয়েছে, যার কামবাসনা মলিন হয়ে গিয়েছে, যার কাছে দুনিয়া অপাংক্তেয় হয়ে গেছে এবং যে মৃত্যুর ছায়ার নিচে।
তার মত আমি ভিক্ষা করছি যার গুনাহ্ অগনিত এবং যে তার ভুল স্বীকার করেছে।
তার মত আমি ভিক্ষা করছি আপনি ছাড়া আর কোনো মালিক নেই এবং যে আপনার সাথে কাউকে শরিক করে না।
আপনার কাছ তেকে তাকে রক্ষা করার কেউ নেই।
আপনার কাছ থেকে রক্ষা করতে পারে এমন কোনো পালানোর সুযোগ আমার নেই।
হে প্রভু, আপনার কাছে ভিক্ষা করছি, আপনার হক্বের দ্বারা যা সকল সৃষ্টির জন্য বাধ্যগত, আপনার মহান নামসমূহের দ্বারা যা দ্বারা আপনার নবীকে বলেছেন আপনাকে স্বরণ কাতে, আপনার গৌরবময় সত্তার মর্যাদার দ্বারা যা ধ্বয়স হবে না, পরিবর্তন হবে না,বদল হতে পারে না এবং মৃত্যু হতে পারে না।
হযরত মুহাম্মদ এবং তাঁর বংশধরদের উপর অনুগ্রহ করুন এবং আমাকে আপনার এবাদতে নিয়োজিত করে সকল চাহিদার উর্ধ্বে রাখুন।
আপনাকে ভয় করার মাধ্যমে আমার দিলকে দুনিয়া থেকে হাটিয়ে দিন।
আপনার সদাশয়তায় আপনি আমাকে আপনার দয়ার প্রাচুর্য হতে প্রতিদান দিন। সেজন্য, আমি আপনার কাছে ধাবিত হয়েছি। আমি আপনাকে ভয় করি। সংশোধনের জন্য আমি আপনার কাছে আবেদন করছি। আপনার কাছেই আমি আশ্রয়ের জন্য পলায়ন করি। আপনার কাছে আমি আস্থা রাখি এবং আপনার কাছে সাহায্য প্রার্থনা করছি। আপনার কাছেই আমি এঁেট আছি। আপনার উপর আমি নর্ভর করি। আপনার দয়া ও সদাশয়তার উপর আমি নির্ভর করছি।
Ref: হযরত ইমাম জয়নাল আবেদীন আল ছহীফাহ্ আল সাজ্জাদীয়াহ্
অনুবাদ মুহাম্মদ মাঈনউদ্দিন
অন্যধারা, ৩৮/২-ক বাংলাবাজার (৫ম তলা) ঢাকা-১১০০
প্রকাশকাল : সেপ্টেম্বর ২০০৮
বাংলা অনুবাদ: প্রকাশক ২০০৮